অন্যান্যবাংলাদেশ

স্থিতিশীল নিত্যপণ্যের বাজার

করোনার প্রভাবে অনেকটাই ক্রেতাশূণ্য হয়ে পড়েছে রাজধানীর অধিকাংশ কাচাবাজার। পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় দামও হাতের নাগালে। মাছ, মাংস, কাচা সব্জিসহ যে কোন তরকারীর দাম স্বাভাবিকের তুলনায় সহনীয় পর্যায়ে। কমেছে ডিম, আলু, পেয়াজ, রসুনসহ বিভিন্ন পণ্যের দাম। স্থিতিশীল রয়েছে চালের বাজারও।

করোনার প্রভাব পড়েছে রাজধানীর কাচাবাজার গুলোতে। ক্রেতাশুন্য হয়ে পড়ায় বাজারগুলোতে নিত্যপণ্যের দাম এখন অনেকটাই হাতের নাগালে। রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, বেগুন, বরবটি, করলা, পটল, ফুলকপি, বাধাকপি, ছিম, শষা, গাজর, টমেটোসহ বিভিন্ন কাচা সব্জির দাম তুলনামুলক কম।

মাছের বাজার ঘুরেও দেখা গেলো একই চিত্র। পর্যাপ্ত মজুদ থাকা সত্তেও ক্রেতা না থাকায় প্রায় সব রকম মাছই বিক্রি হচ্ছে তুলনামূলক কম দামে। এছাড়া স্থিতিশীল রয়েছে ডাল, তেল, চিনি, গুড়াদুধ, মশলাসহ বিভিন্ন মুদি পণ্যের মুল্য। বাজারে রয়েছে পেয়াজের পর্যাপ্ত মজুদ। প্রতিকেজি দেশী পেয়াজ বিক্রী হচ্ছে ৩৫ টাকা কেজি দরে।

ব্রয়লার মুরগীর দাম কমলেও, সরকারের বেধে দেয়া দামেই বিক্রী হচ্ছে গরু ও খাসীর মাংস। কমে এসেছে ডিমের দাম। প্রতিহালি ডিম পাইকারি ২৫ ও খুচরা ২৮ টাকা দরে বিক্রী হচ্ছে। মূল্য অপরিবর্তিত থাকায় আতংক নেই চাউলের বাজারে। এছাড়া, রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে চলছে নিম্নবিত্তদের জন্য অপেক্ষাকৃত কম দামে টিসিবির পণ্য বিক্রয় কাযক্রম।

শাহরিয়ার রাজ, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close