অন্যান্যবাংলাদেশ

দেশে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাড়ছে ভুট্টা চাষ

ভুট্টা বাংলাদেশের অপ্রচলিত একটি শস্য। কিন্তু বর্তমানে ধানের পরই দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ আবাদকৃত ফসল এই ভুট্টা। দিন দিনই যেন দেশে ভুট্টা চাষের ইতিহাস পাল্টে যাচ্ছে। গত এক দশক হাইব্রিড ভুট্টার আবাদি এলাকা, উৎপাদন ও হেক্টরপ্রতি ফলন উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে। এছাড়া, দেশে উৎপাদন বাড়ছে নানারকম অপ্রচলিত ফল ও ফসলেরও।

স্বাধীনতার পর রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে বঙ্গবন্ধু কৃষি ও খাদ্য উৎপাদনে একটি পূর্ণাঙ্গ রূপরেখা ও দর্শন তুলে ধরেন। দেশের বুনিয়াদ রচনার জন্য বার বার তিনি তাকান মাটির দিকে। স্মরণ করিয়ে দেন এ দেশের মাটির বিশেষ বৈশিষ্ট্যের কথা।

বর্তমানে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও তাঁর সরকারের নেওয়া পদক্ষেপগুলোরই সুফল পাচ্ছে জাতি। সরকারের বহুমুখী উদ্যোগ, কৃষি বিজ্ঞানী ও চাষিদের অক্লান্ত পরিশ্রমের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশে এখন ভুট্টা উৎপাদন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬ লাখ মে: টনে। বৈশ্বিক কৃষিপণ্য উৎপাদন, ফলন ও আবাদের ওপর মার্কিন কৃষি বিভাগ- ইউএসডিএ’র প্রতিবেদন বলছে, চলতি মৌসুমে বাংলাদেশে ভুট্টা উৎপাদন ও ফলনে আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বর্তমান প্রজন্ম কৃষিতে মনোনিবেশ করে দেশের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তায় অসামান্য অবদান রাখছে। নিজ উদ্যোগেই তারা মজবুত করে চলেছেন দেশের কৃষি অর্থনীতি। সিংক: কৃষি গবেষক অধ্যাপক ড. শহীদুর রশিদ ভূঁইয়া বলেন, হাইব্রিড ভুট্টার ফলন বেশি হওয়ায় কৃষক লাভবান হচ্ছেন।

ফলে এর চাহিদাও ক্রমশঃই বাড়ছে। এক সময় সেপ্টেম্বর থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত সময়কালে বিদেশী ফলের ওপর নির্ভরতা ছিল। এখন এ সময়েও দেশী ফলের সরবরাহ বেড়েছে। দেশে নতুন নতুন জাতের দেশি ফল এবং মাল্টা, কমলা, স্ট্রবেরি, ড্রাগনসহ নানা রকম বিদেশী জাতের ফলের আবাদ হচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ড্রাগন ফল উৎপাদন যেভাবে বাড়ছে, তাতে আর কয়েক বছর পরই দেশের চাহিদা মিটিয়ে তা বিদেশে রপ্তানিও করা যাবে।

আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close