আইন-বিচারবাংলাদেশ

নামের মিলে আরেক রুবেল জেলে, ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের

২০১৮ সালের ৬ এপ্রিল চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কালুপুর সেতুর কাছ থেকে গাঁজা সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল পাঁকা ইউনিয়নের চরপাঁকা কদমতলা গ্রামের মন্টু আলীর ছেলে রুবেল আলী ওরফে রুবেল বাবুলকে (২৬)। ওইদিনই এসআই আবদুস সালাম রুবেল বাবুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ২৬ ধারায় মামলা করেন।

পরে তাকে জেলে পাঠানো হয়। ৫ দিন পর রুবেল মুক্তি পান। তিন দফা আদালতে হাজিরাও দেন তিনি। এরপর হঠাৎ উধাও হয়ে যান রুবেল। ওই বছর ১০ জুলাই এসআই বাবুল ইসলাম আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট দিলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রুবেল বাবুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

এরপর পরোয়ানাটি দীর্ঘসময় পড়ে ছিল শিবগঞ্জ থানায়।চলতি বছরের ১০ মার্চ রাতে ওই পরোয়ানামূলে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ পাশের জামাইপাড়া গ্রামের মো. মন্টুর ছেলে মো. রুবেলকে (২৩) গ্রেফতার করে। গ্রামের নাম আলাদা হলেও আসামি ও তার বাবার নামে মিল থাকায় তাকে কারাগারে থাকতে হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

এরেআগে ‘এক রুবেলের বদলে জেলে আরেক রুবেল’ শিরোনামে একটি দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। তখন বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির। শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

শিশির মনির বলেন, কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সে সম্পর্কে অবহিত করারও নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।বুধবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল বেঞ্চ চাপাইনবাবগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে এ নির্দেশ দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close