অন্যান্যঅপরাধআইন-বিচারদেশবাংলা

শেরপুরে চিকিৎসককে মারধর; জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে ঢুকে, দায়িত্বরত এক চিকিৎসককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় চার ঘন্টা হাসপাতালের সকল সেবা বন্ধ রেখে,দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে দুইদিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিসি টিভির ফুটেজে দেখা যায়,১৫ থেকে ২০জন লোক দলবেঁধে হাসপাতালে প্রবেশ করে,দায়িত্বরত কমিউনিটি উপ-সহকারি মেডিকেল এসিসট্যান্ট দেলোয়ারের ওপর অতর্কিত হামলা করে। পরে তাকে আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। খবর পেয়ে সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

গত সোমবার রাতে,উপজেলার বাঘবেড় ইউনিয়নের জাঙ্গালিয়াকান্দা গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে শাকিল হোসেন অসুস্থ হয়ে পড়লে,স্বজনরা হাসপাতালে কর্মরত মেডিক্যাল এসিস্ট্যান্ট আবদুর রউফকে বাড়ি নিয়ে যায় এবং প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতালে নিতে পরামর্শ দেন।

কিন্তু হাসপাতালে নেয়ার পথেই শাকিলের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে জরুরী বিভাগে প্রবেশ করে দায়িত্বরত মেডিক্যাল এসিস্ট্যান্ট দেলোয়ার হোসেনের ওপর হামলা করে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার হাসপাতালের সকল সেবা বন্ধ রাখে চিকিৎসকরা। পরে উপজেলা চেয়ারম্যান ও থানার ওসির আশ্বাসে হাসপাতালের কার্যক্রম স্বাভাবিক করে। তবে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে দুইদিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

দ্রুত আসামীদের ধরতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ১০জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৫/৭ জনকে  আসামী করে নালিতাবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাংলাটিভি/দেশবাংলা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button