দেশবাংলা

আত্মহত্যার অনুমতি চেয়ে বৃদ্ধের আবেদন

ইউপি কার্যালয় নির্মাণের জন্য দান করেছিলেন ৩০ শতাংশ জমি। কিন্তু জালিয়াতি করে লিখে নেয়া হয় ১ একর। আদালতের রায় পক্ষে পেলেও পাননি অবশিষ্ট জমির দখল। তাই এবার আত্মহত্যার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছেন।

লালমনিরহাটের আদিতমারীর বৃদ্ধ আবু বক্কর সিদ্দিক। ১৯৮০ সালে কমলাবাড়ী ইউপি কার্যালয় নির্মাণের জন্য দান করেন ৩০ শতাংশ জমি। তার দাবি, তখন জালিয়াতি করে লিখে নেয়া হয় ১ একর।

অবশিষ্ট জমি ফেরত পেতে দুই হাজার সালে আদালতে মামলা করেন তিনি। রায় আসে তার পক্ষে। পরে জেলা প্রশাসক আপিল করলেও তা খারিজ করেন আদালত। কিন্তু রায় পেলেও জমির দখল বুঝে পাননি আবু বক্কর। পরে জমি বুঝে পেতে গত বছর আদালতে আবারো মামলা করেন ওই বৃদ্ধ।

সেই মামলাটি এক বছরেও নিষ্পত্তি নাওয়ায় ওই বৃদ্ধ এবার জেলা প্রশাসকের কাছে আত্মহত্যার অনুমতি চেয়েছেন।

আইনজীবী আবু আহাদ খন্দকার লেলিন বলেন, ‘সরকারের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা যারা জড়িত তাদের দীর্ঘসূত্রিতার কারণে রায়ের সুফল পেতে বিলম্ব হওয়ায় উনি আজ আত্মহত্যার জন্য দরখাস্ত করেছেন।’

এদিকে, হাজীগঞ্জ বাজার এলাকায় দান করা ওই জমিতে ইউপি কার্যালয় নির্মাণের কথা থাকলেও পরে তা বানানো হয় কমলাবাড়ীতে। ফলে বিবাদমান জমি দখল করে গড়ে উঠেছে ৭০-৮০টি দোকানঘর।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button