দেশবাংলা

নাটোরে বাড়ির আঙ্গীনায় চারা ও সবজি চাষে ভাগ্য বদল

নাটোরের সিংড়ার নলবাতা গুপতিপাড়া গ্রামে বাড়ির আঙ্গীনায় চারা ও সবজি চাষে ভাগ্য বদলে দিয়েছে, অর্ধশত পরিবারের। উৎপাদিত সবজি ও চারা স্থানীয়দের চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্নস্থানে সরবরাহ করা যাচ্ছে। ফলে, ক্রমেই বাড়ছে চাষীর সংখ্যা। কৃষি বিভাগ বলছে,চাষিদের সঠিক পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

নাটোরের সিংড়া উপজেলার নলবাতা গুপতিপাড়া গ্রামের মিলন হোসেন। এইচএসসি পাশ করার পর, চাকুরী না খুঁজে বাড়ির আঙ্গীনায় ৫ কাঠা জমিতে বেড করে, বিভিন্ন সবজির চারা বপন শুরু করেন।

এখন ওই চারা তার ভাগ্য বদলে দিয়েছে। বর্তমানে  তিনি ৩ বিঘা জমিতে সবজি চারা রোপন করেছেন। একই গ্রামের অভয় প্রামানিক বাড়ির আঙ্গীনাসহ ৭ কাঠা জমিতে চারা ও সবজি চাষ করে সাবলম্বী হয়েছেন।

এ গ্রামের আরও প্রায় ৫০টি পরিবার বাড়ির আঙ্গীনায় বেড করে বপন করেছেন বেগুন,কফি,মরিচ,টমেটোসহ নানা জাতের সবজির চারা। বাড়ির উঠোনে এসব সবজি চারার বেড হওয়ায়, পরিবারের সব সদস্য নিয়মিত পরিচর্যা করতে পারছেন সহজেই। ফলে, শ্রমিক খরচও তেমন একটা লাগছে না।

কৃষি বিভাগ থেকে বাড়ির আঙ্গীনায় সবজি চাষিদের সব ধরণের সহযোগিতার কথা জানিয়েছেন,উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা।

নলবাতা গুপতিপাড়া গ্রামের বাড়ির আঙ্গীনায় সবজি চাষ দেখে, অন্যরাও আগ্রহী হয়ে উঠছে বলে জানান, কৃষি কর্মকর্তা।

বাংলা টিভি/দেশবাংলা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button