দেশবাংলা

মুজিবনগরে ভাস্কর্যের নিরাপত্তায় সিসি ক্যামেরা

বতর্মান সময়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষ্কর্য নির্মাণ ও কুষ্টিয়ায় ঘটে যাওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কার্য ভাংচুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করনে মুজিবনগরের ভাস্কর্যে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

পর্যটন পুলিশ সহ আইনশৃখংলাবাহিনী কঠোর নিরাপত্তার পাশাপাশি স্থাপন করা হচ্ছে সিসি ক্যামেরা। এখানে আগত দর্শনার্থীসহ মুজিবনগর কমপ্লেক্স অবস্থানরত প্রত্যেককে পর্যবেক্ষনের মধ্যে রাখা যাবে। বর্তমান ও আগামী প্রজন্মের কাছে স্বাধীনতাপরবর্তী মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরার জন্য নেয়া হয় বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ।

তারই আওতায় ১৯৮৮ সালে নির্মান করা হয় মুজিবনগর স্মৃতিসৌধ। ১৯৯৬ সালের পর সেখানে নির্মাণ করা হয় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক নানা ভাস্কর্য। পরবর্তীতে ২০০৫ থেকে ২০১১ শত কোটি টাকা ব্যায়ে অবস্থিত মুজিবনগর কমপ্লেক্স।

বর্তমানে কমপ্লেক্স চত্বরের ভিতরে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণরত ভাস্কর্য ও মুক্তিযুদ্ধের উল্লেখযোগ্য গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার ৬০০ টি ছোট বড় ভাস্কর্ষ। মুজিব নগর কমপ্লেক্সের মধ্যে যা গভীর পর্যবেক্ষণের জন্য বতর্মান সময়ে নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে সিসিটিভি স্থাপনের কাজ করছে গণপুর্ত বিভাগ। সেই সাথে মেরামত কাজে যোর দেয়া হয়েছে ত্রুটি যুক্ত লাইট পোষ্ট গুলির।

মুজিব নগরে ঘুরতে আসা পর্যটক শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিরাজ উদ্দীন জানান মুজিব নগর কমপ্লেক্সের মধ্যে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের কারনে এটির নিরাপত্তা ক্ষেত্রটি আরো বেশি মজবুত হলো।

মুজিবনগর কমপ্লেক্সের ভিতরে খেলনা বিক্রেতা জমির উদ্দীন জানান প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এখানে ঘুরতে আসা শত শত মানুষ তারা অনেক সময় ছবি উঠানোর জন্য ভাষ্কর্য গুলির খুব কাছে চলে যায় আজ কয়েকদিন দেখছি সিসি ক্যামেরা স্থাপনে দুরত্ব বজায় রেখে ছবি উঠাচ্ছে।

মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সূজন সরকার জানান, বর্তমান সময়ে কুষ্টিয়ায় নির্মানাধীন ভাষ্কর্য ভাঙচুর হওয়ার ঘটনার পর থেকেই মুজিবনগর কমপ্লেক্সের মধ্যে থাকা মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক ভাষ্কর্য রক্ষার্থে বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নির্দেশে পুলিশ বিভাগ, ট্যুরিস্ট পুলিশ, আনসার বাহিনী ও সাদাপোশাকের আইনশৃংখলাবাহিনীর সদস্যরা নিরাপত্তায় কাজ করছে।

বতর্মানে সশস্ত্র আনছার সদস্যরা ২৪ ঘন্টায় দায়িত্ব পালন করছেন। গণপুর্ত বিভাগের পক্ষ থেকে সিসিটিভি স্থাপনের কাজ চলমান রয়েছে। যা ভাষ্কর্যসহ মুজিব =নগর কমপ্লেক্সের নিরাপত্তায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

আকতারুজ্জামান, মেহেরপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button