বাংলাদেশজনদুর্ভোগ

অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে রাজধানীর বায়ূদূষণ

অসহনীয় পর্যায়ে চলে গেছে রাজধানী ঢাকার বায়ূদূষণের মাত্রা। শীত মৌসুম আসার সঙ্গে সঙ্গে এ পরিস্থিতি যেন হয়ে ওঠে আরও ভয়াবহ। তিলোত্তমা এই নগরীর ধুলাবালিকে এ দুষণের অন্যতম প্রধান কারণ হিসেবে দেখছেন পরিবেশবিদরা। আর স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বায়ু দূষণের ফলে মানুষের নিউমোনিয়া, লিভার, কিডনিসহ ফুসফুসের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

সোয়া দুই কোটির ওপরে মানুষের বসবাস রাজধানী ঢাকায়। দিনে দিনে অসহনীয় পর্যায়ে চলে গেছে এ শহরের বায়ূদূষণের মাত্রা। সম্প্রতি বিশ্বের সবচে দূষিত শহরের তালিকায় আবারও শীর্ষে উঠে এসেছে ঢাকা।

শুধু তাই নয়, যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বৈশ্বিক বায়ূদূষণ পর্যবেক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান এয়ার ভিজ্যুয়ালের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের সবচে দূষিত দেশের তালিকার শীর্ষেও বাংলাদেশ; যার গড় বায়ূদূষণের মাত্রা ৯৭ দশমিক এক শূন্য। আর শীতকালে এর সাথে ধুলিদূষণ যুক্ত হয়ে পরিস্থিতিকে করে তোলে আরও শোচনীয়। এমন পরিস্থিতিতে রাজধানীবাসী, বিশেষ করে শিশু ও বয়স্করা রয়েছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে।

ধুলাবালিই রাজধানীর বায়ূদূষণের প্রধান কারণ বলে মন্তব্য করেন, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন- বাপা’র নির্বাহী সহ-সভাপতি ড. আবদুল মতিন। পাশাপাশি, ফিটনেসবিহীন গাড়ি, ইটভাটা ও কলকারখানার ধোঁয়াও এ জন্য দায়ী বলে মত দেন তিনি।

তবে, আগের বছরগুলোর তুলনায় এ বছর বায়ূর মান উন্নত করতে পেরেছেন- দাবী ক’রে দূষণ রোধে সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা জানান, পরিবেশ বন ও জলবায়ূ পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। সবাই সচেতন হলে বায়ূদূষণসহ যেকোনো দূষণ থেকে সহজেই মুক্তি মেলা সম্ভব বলেও মত দেন তিনি।

আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button