বাংলাদেশআওয়ামী লীগরাজনীতি

গণতন্ত্রের এগিয়ে যাওয়ার পথে বিএনপিই প্রধান বাধা: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির নেতিবাচক ও অতি ক্ষমতাকেন্দ্রিক রাজনীতি দেশে গণতন্ত্র বিকাশের পথে প্রধান বাধা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এমন মন্তব্য করেন।

গণতন্ত্রের শত ফুল একদিনেই ফোটে না। এর জন্য প্রয়োজন নিরবিচ্ছিন্ন পরিচর্যার। কিন্তু এই গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে বিএনপি কোনও দায়িত্বশীল ভূমিকা তো রাখেইনি, বরং পদে পদে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপি জনরায় পাওয়ার আগেই ফল প্রত্যাখ্যান করেছে, যা প্রকারান্তরে জনগণের রায়কেই অপমান করা।

সরকার গণতন্ত্র ও অর্থনীতি ধ্বংস করে দিয়েছে বিএনপি নেতাদের এই বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে তিনি আরও বলেন,‘ধ্বংস নয়, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন সৃষ্টিশীল বাংলাদেশ বিনির্মাণের মহাযজ্ঞ চলছে। সারাদেশে চলছে সমৃদ্ধির সোপানে নতুন উচ্চতা নির্মাণের নিরলস প্রয়াস।

কাদের বলেন, দেশে কোন স্বৈরতন্ত্র নেই, আছে গণতন্ত্র। গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ আর বাক স্বাধীনতা। তাই বিএনপি প্রতিনিয়ত সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারছে, পারছে অবিরাম বিষোদগার করতে। দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই নিয়মিত নির্বাচন-উপনির্বাচন হচ্ছে এবং বিএনপিও নিয়মিত অংশ নিতে পারছে। তারা জয়লাভও করছে।

বিএনপি দেশকে পিছিয়ে দিতে চিরাচরিত পাকিস্তানি ভাবধারার দৃষ্টিসীমায় রাষ্ট্রের অর্জন আর সক্ষমতার সুবর্ণ রূপ দেখতে পায় না ‘তারা শেখ হাসিনার অর্জনে প্রতিহিংসার আগুনে দগ্ধ হচ্ছে প্রতিনিয়ত। করোনা মহামারিতে শেখ হাসিনার মানবিক নেতৃত্বের কারণে একজন মানুষও না খেয়ে মরেনি। আর এটাই বিএনপির কষ্টের কারণ।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। উচ্চ হারে প্রবৃদ্ধি, প্রবাসী আয়সহ সব আর্থসামাজিক সূচকে ফিরে এসেছে ইতিবাচক ধারা। বিশ্বসমাজ যখন দেশের প্রশংসা করে তখন বিএনপি ধ্বংস ছাড়া কিছু দেখতে পায় না। আসলে তাদের সমস্যা মনস্তাত্ত্বিক। তারা সৃষ্টিতে নয়, ধ্বংসাত্মক প্রবণতায় ভুগছে। জনগণ এখন আর  বিএনপির ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি ও মিথ্যাচারে জনগণ সাড়া দেয় না।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button