আন্তর্জাতিকএশিয়াবাংলাদেশ

অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্যে সম্মত বাংলাদেশ-মালদ্বীপ

শিগগিরই মালদ্বীপে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট চালু হবে, এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে মাল পর্যন্ত একটি শিপিং লাইন চালুর বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। বিকেলে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ে, তিনি একথা জানান। এসময় মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ শহীদ বলেন, যোগাযোগ বৃদ্ধি পেলে দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের নতুন দ্বার খুলবে। এর আগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সফররত মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহামেদ সলিহের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে চারটি সমঝোতা স্মারক সই হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহাম্মদ সলিহর বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে তাদের উপস্থিতিতে দুই দেশের মধ্যে ৪টি সমঝোতা স্মারক সই হয়। সমঝোতা স্মারকগুলোর মধ্যে রয়েছে পারস্পরিক সহযোগিতার জন্য যৌথ কমিশন গঠন, পররাষ্ট্রসচিব পর্যায়ে নিয়মিত বৈঠক, সামুদ্রিক সম্পদ আহরণে সহায়তা ও সাংস্কৃতিক বিনিময়।

পরে বিকেলে রারজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানান, বাংলাদেশ-মালদ্বীপ সরকারের মধ্যে বৈঠকে অনেক কিছুই অর্জিত হয়েছে। যার মাধ্যমে দুই দেশের শক্তিশালী সংযোগ স্থাপিত হবে।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ শহীদ বলেন, সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির বিষয়ে  দুই দেশের সরকারই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। সাক্ষরিত সমঝোতাগুলো ছাড়াও আরও বেশকিছু বিষয়ে দু’দেশের আলোচনা চলমান থাকবে।

এছাড়া রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে মালদ্বীপ সরকার বাংলাদেশের প্রতি তাদের সমর্থন অব্যাহত রাখবে বলেও, জানানো হয়।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button