বাংলাদেশঅন্যান্য

মহান মে দিবস

আজ মহান মে দিবস। করোনাকালের এই সংকটেও উপেক্ষিতই রয়ে গেছে মেহনতির ন্যায্য অধিকার। আয়-রোজগার নিয়ে এখনো দুরাশা কাটেনি খেটে খাওয়া বহু মানুষের। অর্ধাহারে কাটছে, দিন এনে দিন খাওয়া এসব শ্রমিকদের। তাদের দাবী, পরিস্থিতি বিবেচনায় পারিশ্রমিক বৃদ্ধির করা হোক।

সকাল থেকে কাজে ব্যস্ত এ শ্রমিক। করোনা এ সংকটকালীন সময়ে খুব বেশি একটা কাজ না থাকলেও, কর্মস্থলে আসতে হয় সকাল ৯টায়। মালিকের বেঁধে দেয়া সময় মেনে থাকতে হয় রাত ৮টা পর্যন্ত। মেশিনের চাকা ঘুরিয়ে গেলেও, থমকে আছে এসব মানুষের ভাগ্যের চাকা। দিনে যা আয় হয়, তার সিংহভাগই চলে যায় মালিকের পক্ষের পকেটে।

এদিকে, আগের মতো বেচাকেনা না থাকায় হিমশিম খেতে হচ্ছে ফুটপাতের বিক্রেতাদেরকেও। তাই মে দিবসও যেন কোনো প্রভাব ফেলছে না এসব শ্রমিকদের জীবনে। করোনাকালে লকডাউন নিয়ে এখন আরো বিপাকে দিন এনে দিন খাওয়া অজস্র রিক্সাচালক।

শ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠার দিবসে তাদের প্রত্যাশা, কেবল একটি তারিখে নয় সর্বস্তরে কাজের যথাযথ মূল্য সময়মতো পরিশোধ নিশ্চিত হোক।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button