আন্তর্জাতিকঅপরাধ

ফিলিস্তিনে রোববার সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু

ইসরায়েলের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের নতুন করে সংঘাত শুরুর পর রোববার সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে গাজায়।এদিন ৪২ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন বলে ফিলিস্তিনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী বলেছে, গত সপ্তাহজুড়ে ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা ইসরায়েলের দিকে তিন হাজারেরও বেশি রকেট ছুড়েছে।

নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সময় রোববার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে বিশ্ব সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস সতর্ক করে বলেছেন, লড়াই এভাবে চলতে থাকলে ওই অঞ্চল ‘অনিয়ন্ত্রিত সংকটের’ মধ্যে ডুবে যেতে পারে।অত্যন্ত ভয়াবহ এই সহিংসতা অবিলম্বে শেষ করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার ইসরায়েল-গাজার লড়াই দ্বিতীয় সপ্তাহে গড়িয়েছে। এদিন ভোররাতে ইসরায়েলি যুদ্ধবিমানগুলো গাজা সিটির বেশ কয়েকটি এলাকায় ৮০ বার বিমান হামলা চালিয়েছে, হামাসের যোদ্ধারা ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে এক পশলা রকেট ছোড়ার পর এসব হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, মধ্যরাতের একটু পর ইসরায়েলের বীরশেবা ও আশকেলন শহরে গাজা থেকে রকেট হামলা চালানোর পর তাদের জঙ্গি বিমানগুলো ‘সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যে আঘাত হেনেছে।

তাৎক্ষণিকভাবে সীমান্তের কোনো পাশ থেকে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। গাজায় জ্বালানি সংকট দেখা দিচ্ছে আর এ কারণে ফিলিস্তিনি ছিটমহলটির হাসপাতাল ও অন্যান্য স্থাপনাগুলো বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ।

মধ্যপ্রাচের শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য নিয়োজিত জাতিসংঘের বিশেষ উপ-সমন্বয়কারী ল্যান হেস্টিংস বিবিসিকে জানিয়েছেন, জাতিসংঘকে জ্বালানি ও অন্যান্য সরবরাহ পাঠানোর অনুমতি দেওয়ার জন্য তিনি ইসরায়েলের কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন কিন্তু এটি নিরাপদ হবে না বলে তাকে জানানো হয়েছে।

রোববার নিহত ৪২ জনসহ গাজায় এক সপ্তাহের ইসরায়েলি হামলায় ৫৮টি শিশু ও ৩৪ জন নারীসহ মোট ১৯৭ জন নিহত হয়েছেন বলে ভূখণ্ডটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। অপরদিকে ইসরায়েলে দু’টি শিশু ও এক সৈন্যসহ ১০ জন নিহত হয়েছেন।

বাংলাটিভি/এস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button