দেশবাংলা

লাভজনক হওয়ায় শেরপুরে গাজর চাষে আগ্রহী হচ্ছে অনেকেই

কম খরচে ও স্বল্প সময়ে অধিক লাভ হওয়ায় শেরপুরে গাঁজর চাষে আগ্রহী হচ্ছেন কৃষকরা। উৎপাদিত গাঁজর স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায়ও সরবরাহ করা হচ্ছে। এটি চাষে সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে কৃষি বিভাগ।

এক সময় শেরপুর জেলায় ক্ষুদ্র পরিসরে গাঁজর চাষ হতো।  যা দিয়ে জেলাবাসীর চাহিদা মেটানো ছিল একেবারেই অসম্ভব।  সে কারণে অন্য জেলা থেকে তা আমদানি করে স্থানীয় চাহিদা পূরণের চেষ্টা করা হতো।  এবার জেলা সদর, নকলা ও শ্রীবরদী উপজেলায় এটি চাষ করেছেন কৃষকরা।

তারা জানান, অল্প পূঁজি আর শ্রমে এবার গাজরের বাম্পার ফলন হয়েছে।  যা জেলার চাহিদা মিটিয়ে পাশ্ববর্তী জেলায় বিক্রি করা হচ্ছে।  প্রতিমণ গাজর বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে  ৬’শ থেকে ৮’শ টাকায়।

গাজর চাষে কৃষকরা যতটা লাভবান হন, ধান বা অন্য কোন ফসল আবাদে সেটি সম্ভব নয়- এমন তথ্য দিয়ে, এ কাজে কৃষি বিভাগ সব ধরণের সহযোগিতা দিচ্ছে বলে জানালেন এই কর্মকর্তা।

শেরপুর জেলায় এবার ১৬৫ হেক্টর জমিতে গাজরের আবাদ হয়েছে। এখানকার উৎপাদিত গাজর স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায়ও সরবরাহ করা হচ্ছে।

ডেস্ক রিপোর্ট/বাংলা টিভি/এস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button