অর্থনীতিদেশবাংলা

পটুয়াখালীতে একই জমিতে অন্য ফসলের পাশাপাশি আনারস চাষে সম্ভাবনা

করোনা ও জলবায়ূ পরিবর্তন পরিস্থিতিতে, একই জমিতে অন্য ফসলের পাশাপাশি, আনারস চাষে সম্ভাবনা দেখছেন, পটুয়াখালী আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা। মধুপুরের আনারস চাষ করে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন তারা। ফলে, স্থানীয় কৃষকরা এর চাষে উৎসাহিত হচ্ছেন। কৃষির টেকসই উন্নয়ন হলে, কর্মসংস্থানে তৈরী হতে পারে নতুন ভরসা। জানালেন, বিজ্ঞানীরা।

একদিকে মহামারী করোনা অন্যদিকে দ্রুত জলবায়ূ পরিবর্তনের কারণে, দিন দিন হুমকির মুখে পড়ছে উপকূলের কৃষি ব্যবস্থাপনা। এমন পরিস্থিতিতে একই জমি থেকে একাধিক ফসল উৎপাদন এবং বহুবীধ ব্যবহারের কথা ভাবছেন, পটুয়াখালীর আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা। এ বাস্তবতা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

দক্ষিণাঞ্চলের কৃষকদের এ বিষয়ে সরাসরি কারিগরি ধারণা দিতে, গবেষণা কেন্দ্রের আম বাগানে, সাথী ফসল হিসেবে ভায়াল মধুপুরের আনারস চাষ করে, ব্যাপক সফলতা পেয়েছে। তাদের সফলতা দেখে স্থানীয় কৃষকরা, আনারস চাষে উৎসাহিত হচ্ছেন। এখানে আনারসের চাষ না করায়, অন্য জেলা থেকে সংগ্রহ করে, স্থানীয় চাহিদা পূরণ করা হচ্ছে। ফলে এ অঞ্চলের বাজারগুলোতে এর মূল্য অনেক বেশী।

দক্ষিনাঞ্চলে আম বাগান কিংবা, যে কোন ফল বাগানের ফাঁকা জায়গায়, আনারস চাষে উদ্বুদ্ধ করার কথা জানান, পটুয়াখালী আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা।

বর্ষার শেষের দিকে জুন-জুলাই মাসে, আনারসের চারা রোপণ করে, একটু পরিচর্যা করলেই, ভালো ফলন পাওয়া সম্ভব। এবছর এ কেন্দ্রে হেক্টর প্রতি ৪০টন ফলন পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি ।

ডেস্ক রিপোর্ট/ বাংলা টিভি/ এস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button