fbpx
দেশবাংলাঅপরাধআইন-বিচার

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় দেলোয়ার ও কালামের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ধর্ষণ মামলায় আসামি দেলোয়ার বাহিনী প্রধান দেলোয়ার হোসেন দেলু ও তার সহযোগী আবুল কালামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদীন আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবনের পাশাপাশি আসামিদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক।চাঞ্চল্যকর এ মামলায় ১৩ কার্যদিবসে বাদীপক্ষের ১২ জন ও আসামিপক্ষের তিনজন সাক্ষীসহ মোট ১৫ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০২০ সালের ২ সেপ্টেম্বর একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে দেলোয়ার বাহিনীর সদস্যরা মধ্যবয়সী এক নারীকে ঘরে ঢুকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করে।

এ সময় মোবাইল ফোনে ধারণ করা একটি ভিডিও ঘটনার একমাস পর ৪ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। সন্ত্রাসীদের ভয়ে আত্মগোপনে থাকা ওই নারীকে ওইদিনই উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।এরপর ওই নারী ২০১৯ সালের ৫ অক্টোবর এবং ২০২০ সালের ৭ এপ্রিল দুই দফায় তাকে ধর্ষণের অভিযোগে দেলওয়ার ও কালামের বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেন।

এছাড়া বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং পর্ণগ্রাফি আইনে আরও দুটি মামলা করেন ওই নারী।

এ মামলা দুটিতে দেলোয়ারের সহযোগী কালামসহ আরও আটজনকে আসামি করা হয়।গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ধর্ষণ মামলার দুই আসামি দেলোয়ার ও আবুল কালামের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

মামলার বাদী সেই নারী বলেন,আমি তাদের মৃত্যুদণ্ড চেয়েছিলাম। আদালতের এ রায়ের ফলে আসামিরা কারাগার থেকে ছাড়া পাওয়ার সুযোগ পাবে না। এতে আমি সন্তুষ্ট।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button