fbpx
বাংলাদেশঅপরাধআইন-বিচার

নব্য জেএমবির সামরিক শাখার কমান্ডার গ্রেফতার

গত ২৪ জুলাই,২০২০ তারিখে রাজধানীর পল্টনে পুলিশের উপর বোমা হামলার ঘটনায় নব্য জেএমবি’র এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ-ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মো. আসাদুজ্জামান এ তথ্য জানান।

রাজধানীর মিন্টো রোডে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘গ্রেফতার আব্দুল্লাহ আল নোমান নব্য জেএমবির সামরিক শাখার একজন দায়িত্বশীল সক্রিয় সদস্য। আব্দুল্লাহ আল নোমান ওরফে আবু বাছির ২০১৮ সালে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল। এক বছর ৬ মাস পরে জামিনে মুক্ত হয়ে আবারও নব্য জেএমবি’র সঙ্গে সক্রিয়ভাবে যুক্ত হয় সে।’

গ্রেপ্তারকৃত আবদুল্লাহ আল নোমান ২০১৭ সালে ফেইসবুকের মাধ্যমে দাওয়াত পেয়ে নব্য জেএমবিতে যোগদান করে এবং ফেইসবুকে সদস্য সংগ্রহসহ উগ্রবাদী কার্যক্রম পরিচালনা করতো। সে টেলিগ্রাম চ্যানেল ও বটের মাধ্যমে নব্য জেএমবি’র অন্যান্য সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে সংগঠনের সামরিক শাখার কাজ পরিচালনা করতো।

আসাদুজ্জামান আরো বলেন, সংগঠনের অপর সদস্য আবু মোহাম্মদ এর নির্দেশে আব্দুল্লাহ আল নোমান ঢাকার মান্ডা এলাকায় এককভাবে রুম ভাড়া করে। আবু মোহাম্মদ তাকে আইইডি (ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) বানানোর ভিডিও টেলিগ্রাম অ্যাপসের মাধ্যমে পাঠায়। আইইডি তৈরির ভিডিও দেখে সে এই বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করে এবং পরবর্তীতে আব্দুল্লাহ আল নোমানকে তার পছন্দমত এলাকায় উক্ত আইইডি দিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলার নির্দেশ দেয়া হয়।

নির্দেশ পাওয়ার পর পল্টন এলাকাটি তার পূর্ব পরিচিত ও চাকরির স্থান হওয়ায় সে উক্ত স্থানটি বেছে নেয়। পল্টন মোড়ের পুলিশ চেকপোস্টের আশেপাশে সিসি ক্যামেরা না থাকায় উক্ত স্থানটি রেকি করে। গত ২৪/০৭/২০২০ খ্রিঃ তারিখ তার তৈরিকৃত আইইডি পুরানা পল্টন মোড়ের পুলিশ চেকপোস্টের সামনে রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটায়।

গ্রেফতারকৃতকে দশ দিনের পুলিশ রিমান্ড আবেদনসহ বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান, পুলিশ-ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button