fbpx
দেশবাংলাঅপরাধআইন-বিচার

বরগুনার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত ফি

বরগুনার বেতাগীতে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায় এবং ব্যবস্থাপনা কমিটির সিদ্ধান্তে,৩ শিক্ষককে বহিস্কারের জেরে বন্ধ হয়ে গেছে,বার্ষিক পরীক্ষা। শিক্ষার্থী, অভিভাবক এবং বহিস্কৃত শিক্ষকদের দাবি,বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির পরামর্শে,প্রধান শিক্ষক এসব অপকর্ম করছেন। প্রতিবাদে বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা। উপজেলা প্রশাসনের আশ্বাস স্থানীয় সাংসদের সহায়তায় দ্রুত শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনার কথা বলেছে স্থানীয় প্রশাসন।

বরগুনার বেতাগী উপজেলার কুমড়াখালী শঁশীভূষন মাধ্যমিক বিদ্যালয়। সম্প্রতি ওই বিদ্যালয়ের ৩ জন শিক্ষককে বহিস্কারের জেরে সৃষ্টি হয় নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি। দু”পক্ষের বিরোধের জেরে বন্ধ হয়ে যায়,পূর্ব নির্ধারিত বার্ষিক পরীক্ষা। বহিস্কৃত শিক্ষক, অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীদের দাবি, বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির পরামর্শে, প্রধান শিক্ষক মঈনুল হোসেন এসব করছেন। অবিলম্বে শিক্ষার অনুকুল পরিবেশ ফিরিয়ে আনার দাবি, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের।

অন্যদিকে, বিদ্যালয়ে অতিরিক্ত ফি এবং বেতন আদায়ের প্রতিবাদে, বার্ষিক পরীক্ষা বন্ধ রেখে বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে, শিক্ষার্থীদের একাংশ।পরে বিদ্যালয়ের ভেতরে থাকা অন্য শিক্ষার্থীদেরও, গেট খুলে বের করে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে কথা বলতে,বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে পাওয়া না গেলেও,সহকারি প্রধান শিক্ষকের দাবি, তিনি প্রধান শিক্ষকের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করছেন। তবে,সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকায় পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি বলে, দাবি তার।বিদ্যালয়ে বেশকিছু অনিয়মের কথা স্বীকার করে, স্থানীয় সাংসদের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে, শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনার আশ্বাস,উপজেলা প্রশাসনের-

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button