অন্যান্যবাংলাদেশ

তফসিল ঘোষণা ৮ নভেম্বর

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে আগামী ৮ নভেম্বর। ওই দিন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা

বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) ও বাংলাদেশ বেতারে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন। সেই ভাষণের মাধ্যমেই তিনি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবেন।

বোববার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায়  নির্বাচন কমিশনের কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদত হোসেন সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘৪ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার চিন্তা কমিশনের ছিল।

তবে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে ৪ নভেম্বরের পরিবর্তে ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণা করা হচ্ছে।’

তফসিলের পর ভোটগ্রহণের জন্য কত দিন সময় রাখা হবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শাহাদত হোসেন বলেন, ‘৪৫ দিনের বা কাছাকাছি সময় রাখা হবে।’

এর আগে কমিশনের বৈঠকে তফসিল কবে ঘোষণা হবে তা নিয়ে আলোচনা হয়।

সেখানেই ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়। প্রথা অনুযায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা ওই দিন বেতার ও টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তফসিল ঘোষণা করবেন।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে অনুষ্ঠিত আজকের বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার, চার কমিশনার, কমিশন সচিব ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কমিশনের একটি সূত্র জানিয়েছে, বড় দিনের আগেই ভোট হবে। এটা ২৩ ডিসেম্বর হতে পারে।

এর আগে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিধিমালা চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

গতকাল শনিবার ও আজ রোববার ইসি কার্যালয়ে টানা বৈঠক শেষে কমিশন এ বিধিমালা চূড়ান্ত করে।

ইভিএম ব্যবহারের বিধিমালা চূড়ান্ত করার বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ইসির যুগ্ম সচিব আবুল কাশেম।

গত বুধবার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিধান যুক্ত করে

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনীর অধ্যাদেশ জারি করেন। এর মাধ্যমে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে পথ উন্মুক্ত হয়।

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close