অন্যান্যবিনোদন

শীতে ত্বক ফাটা থেকে পরিত্রাণ পেতে করণীয়

শীতের আগমনী সুখকর হলেও সঙ্গী করে নিয়ে আসে কিছু মৌসুমি সমস্যা। এর মধ্যে প্রথমেই পড়তে হয়ে ত্বকের সমস্যায়। শীতে ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা কমে যায়। ফলে ত্বক হয়ে পড়ে শুষ্ক,প্রাণহীন। শুষ্ক ও ফেটে যাওয়া কনুই,পায়ের পাতা জীবনযাত্রা যেমন ব্যাহত করে তেমনি সৌন্দর্যের ক্ষেত্রেও অন্যদের সামনে আপনাকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দেয়। তবে ঘরে বসেই ত্বক ফাটা থেকে পরিত্রাণ পেতে। নিচে এমন কিছু টিপস দেওয়া হ০

সাবান পানি: প্রতিদিন ঘুমের আগে কিংবা গোসলের আগে কুসুম গরম সাবান পানিতে পায়ের পাতা ভিজিয়ে রাখুন। এতে চামড়া নরম হবে এবং মৃত চামড়া সহজে তুলে ফেলতে সাহায্য করবে। তারপর তোয়ালে দিয়ে মুছে পায়ের পাতাতে ময়েশ্চারাইজার যেমন গ্লিসারিন বা পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করুন।

দই: আপনার ত্বকে দই প্রয়োগ করলে মুখে ময়শ্চারাইজারের পরিমাণ ঠিক থাকে এবং ব্রেকআউটের বিরুদ্ধেও তা লড়াই করতে পারে। মুখে দই প্রয়োগ করলে তা আপনার ত্বক নরম এবং ময়শ্চারাইজ করতে সহায়তা করে।

এটি আপনার ত্বককে একটি মসৃণ কাঠামো দেয়। আপনার ত্বকে সাদা দই প্রয়োগ করুন এবং প্রায় ১৫ মিনিটের জন্য ছেড়ে দিন। তারপর উষ্ণ জল দিয়ে ধুয়ে দিন। শুষ্কতা হ্রাস করতে সপ্তাহে কয়েকবার বা প্রতিদিনই দই প্রয়োগ করতে পারেন।

মধু: শুষ্ক ত্বকের জন্য আরেকটি দুর্দান্ত ঘরোয়া প্রতিকার হল মধু। মধু খুবই ময়শ্চারাইজিং ও শুষ্কতা কমিয়ে ত্বক নরম করতে সাহায্য করবে। মধুতে অনেক ভিটামিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এবং এতে অ্যান্টিমাইকোবিয়াল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যও রয়েছে।

আপনি ফেস মাস্ক হিসেবে কাঁচা মধু প্রয়োগ করতে পারেন। শুকিয়ে গেলে উষ্ণ জল দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিনবার মধু ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের শুষ্কতা ও সাদা দাগ হ্রাস পাবে।

নারিকেল তেল: আমরা সবাই নারিকেল তেলের বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারিতা জানি। শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসা করতে দুর্দান্ত কাজ করে প্রাকৃতিক এই উপাদান।

নারিকেল তেল শুষ্ক ত্বকের চিকিৎসার জন্য পেট্রোলিয়াম জেলি হিসেবে নিরাপদ ও কার্যকর। এই তেল উল্লেখযোগ্যভাবে ত্বকের হাইড্রেশন উন্নত করে এবং ত্বকে লিপিডের (চর্বি) সংখ্যা বৃদ্ধি করে।

দুধ: যদি ত্বকে চুলকানি বোধ করেন এবং আপনার ত্বকে সাদা দাগ দেখতে পান, তবে ঠাণ্ডা দুধ ব্যবহার করতে পারেন। কাঁচা দুধ একটি কাপড় ভিজিয়ে তা পাঁচ থেকে ১০ মিনিটের জন্য আপনার ত্বকে প্রয়োগ করুন। দুধের ল্যাকটিক অ্যাসিড আপনার শুষ্ক ত্বকের জন্য বিস্ময়করভাবে কাজ করে।

যদি ত্বকে চুলকানি বোধ করেন এবং আপনার ত্বকে সাদা দাগ দেখতে পান,তবে ঠাণ্ডা দুধ ব্যবহার করতে পারেন।

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button