অন্যান্যপ্রধানমন্ত্রীবাংলাদেশ

প্রকাশিত হয়েছে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল

২০১৮ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা এবং অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট-জেএসসি ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট-জেডিসি পরীক্ষার  ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্ত করা হয়েছে।

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ফলাফলের সার-সংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান গণভবনে সকালে ফলের অনুলিপি তুলে দেন। দুপুর ১২টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ১টায় গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে ফল প্রকাশ করবে। এরপরই শিক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবে। দুই সমাপনীতে এবার প্রায় ৫৭ লাখ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এ বছর জেএসসিতে গড় পাসের হার ৮৫.৮৩ শতাংশ। এছাড়া জেএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮ হাজার ৯৫ জন। শতভাগ পাশের প্রতিষ্ঠান ৪,৭৬৯টি। এছাড়া মাদ্রাসা বোর্ডে পাশে হার ৮৯.০৪ শতাংশ।

চলতি বছর ১লা নভেম্বর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট-জেএসসি ও সমমান পরীক্ষা এবং ১৮ই নভেম্বর প্রাথমিক শিক্ষা ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা- পিইসি সারা দেশে একযোগে আনুষ্ঠিত হয় ।

এবার জেএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৪ লাখ ৪৬ হাজার ৬০১ জন ছাত্রী ও ১২ লাখ ২৩ হাজার ৭৩২ জন ছাত্র। অর্থাৎ ছাত্রদের চেয়ে এবার ছাত্রীর সংখ্যা ২ লাখ ২২ হাজার ৮৬৯ জন বেশি। আট বোর্ডের অধীনে এবার জেএসসিতে ২২ লাখ ৬৭ হাজার ৩৪৩ জন এবং মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে জেডিসিতে ৪ লাখ ২ হাজার ৯৯০ জন পরীক্ষায় বসে। এ ছাড়া গত বছরের এক থেকে তিন বিষয়ে যারা অকৃতকার্য হয়েছিল, তারাও এবার এসব বিষয়ে পরীক্ষায় আংশ নেয়।

অপরদিকে, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ২৭ লাখ ৭৭ হাজার ২৭০জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। যার মধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ১২ লাখ ৭৮হাজার ৭শ ৪২ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৯৮হাজার ৫শ ২৮ জন।

ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ৩ লাখ ১৭ হাজার ৮শ ৫৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।  এতে ছাত্র সংখ্যা ১লাখ ৬৬ হাজার ৮১৪ জন এবং ছাত্রী সংখ্যা ১লাখ ৫১ হাজার ৩৯ জন।  প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় এবার ৩ হাজার ২ শ ৯৪জন বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।

বাংলাটিভি/এমআরকে

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close