অন্যান্যঅপরাধআইন-বিচারদেশবাংলাবাংলাদেশ

স্বাধীনতা দিবসে রাজধানী জুড়ে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা

মহান স্বাধীনতা দিবসে যেন কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা না হয় সেজন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। নিরাপত্তা রক্ষার অংশ হিসেবে রাস্তায় যান চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

ডিএমপির গণমাধ্যম শাখা থেকে জানানো হয়েছে, পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব), আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন), আনসার ও ডিবির স্পেশাল অ্যাটাক টিম দায়িত্ব পালন করছে। বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াডও মাঠে আছে। এছাড়া সাদা পোশাকে গোয়েন্দারা দায়িত্ব পালন করছেন।

স্বাধীনতা দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন কর্মসুচীতে অংশগ্রহণের জন্য এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাতায়াত করছেন। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট বসিয়েছে র‌্যাব। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা স্তম্ভ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহবাগ, রমনা, মৎস্য ভবন ও হাইকোর্ট এলাকায় বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। লাগানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা।

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম জানান, কূটনৈতিক এলাকাসহ রাজধানীতে চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে টহল দিচ্ছে পুলিশ। আর এসবকিছুই করা হচ্ছে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার কথা ভেবে।

স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। সেখানে নেওয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সাভার ও আশুলিয়ায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কসহ জাতীয় স্মৃতিসৌধমুখী সড়কগুলোতে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে বসানো হয়েছে নিরাপত্তা চৌকি।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে সেজন্য র‌্যাব সদস্যদের টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়া, র‌্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াডের সদস্যরা গুরুত্বপূর্ণ স্থানে দায়িত্ব পালন করছে।

এদিকে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে রাস্তা সচল রাখতে ট্রাফিক নির্দেশনা জারি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। গাবতলী-আমিনবাজার ব্রিজ ও সাভার-নবীনগর রোড পরিহার করে বিকল্প রাস্তা হিসেবে ঢাকা এয়ারপোর্ট রোড-আব্দুল্লাহপুর ক্রসিং-আশুলিয়া সড়ক হয়ে যানবাহন চলাচল করবে। আমিনবাজার হয়ে ঢাকাগামী যানবাহন নবীনগর বাজার থেকে বাইপাইল-আশুলিয়া হয়ে ঢাকায় প্রবেশ করবে।

বাংলাটিভি/রাজ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close