দেশবাংলা

দ্বিতীয় দিনের মতো তথ্য সংগ্রহে নেমেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ- রাজউক

রাজধানীর ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করতে আজ দ্বিতীয় দিনের মতো মাঠে নামে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ- রাজউক। সকাল থেকে সংস্থার ২৪টি দল চষে বেড়ায় রাজধানীর ১ হাজার ৫২৮ বর্গকিলোমিটার এলাকা। এ সময় বনানীর এফ আর টাওয়ারের পাশের সফুরা টাওয়ারের উপরে অবৈধভাবে নির্মাণ করা দুই তলা ভবনের সন্ধান পান রাজউক কর্মকর্তারা।  সেখানে পাওয়া যায়নি ভবনের জরুরী বহির্গমন সিঁড়িও। দ্বিতীয় দিনে বনানীতে মিলেছে এমন আরও কয়েকটি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের সন্ধান।

বনানীর এফ আর ভবনের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের পর থেকেই দেশের ভবনগুলোর নিরাপত্তার বিষয়টি আলোচনায় আসে। পরে, ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা করার ঘোষণা দেয় রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজউক। ফলে সকাল থেকেই ঢাকায় ২৪টি দলে ভাগ হয়ে দ্বিতীয় দিনের তথ্য সংগ্রহের কাজ শুরু করেন রাজউক কর্মকর্তারা।

অভিযানে, বনানীর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউয়ের কয়েকটি ভবনে ব্যাপক অনিয়ম পায় রাজউক। এর মধ্যে রয়েছে বিল্ডিং কোড না মেনে ভবন তৈরি, আবাসিক ভবনে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানসহ জরুরি বহির্গমন পথের প্রশস্ততা না থাকাসহ অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাও।

পুড়ে যাওয়া এফ আর ভবনের আশপাশের ভবনগুলোই যেন অনিয়মের স্বর্গরাজ্য! ভবন নির্মাণের অনুমোদন নেয়া হলেও, এগুলোতে তার বেশির ভাগই মানা হয়নি। ১৪ তলার অনুমোদন নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে ১৬ তলা।    

অভিযানে, নকশার বাইরের স্থাপনা অপসারণ করতে ভবন কর্তৃপক্ষকে সময় বেধে দেন রাজউক কর্মকর্তারা।  আদেশের ব্যত্যয় ঘটলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারিও দেন তারা।  

বাংলাটিভি/প্রিন্স

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close