আওয়ামী লীগবাংলাদেশ

দেশ যখন ডেঙ্গু মোকাবেলা করছে তখন বিএনপি নতুন নির্বাচনের অমূলক দাবি করছে

 

দেশের সকলে যখন ডেঙ্গু মোকাবিলা করছে, তখন বিএনপি নতুন নির্বাচনের অমূলক দাবি তুলছে। নতুন নির্বাচন হবে, তবে সেটা ২০২৩ সালের ডিসেম্বরে বা ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে ।

 বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে বঙ্গমাতার ৮৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

এ সময় তিনি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তাদের পরিবারের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জেলে থাকার সময় দলকে সঠিক সিদ্ধান্তে পরিচালিত করে অনন্য ভূমিকা রেখেছেন বঙ্গমাতা।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে, সুদূর গ্রাম পর্যন্ত পৌঁছেছে বিদ্যুতের আলো, সন্ধ্যায় এক সানকি বাসি ভাতের জন্য আহাজারি যখন আর শোনা যায় না, দশ বছর পর গ্রামে ফিরে যখন গ্রাম আর চেনা যায় না, সেই দশ বছর ধরেই বিএনপির রাজনীতি ঘুরপাক খাচ্ছে ‘নির্বাচন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারে’। আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে বিভিন্ন দল যখন ডেঙ্গু মোকাবিলা করছে, তখনও তারা পীড়িত মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে নতুন নির্বাচনের অমূলক দাবি তোলায় ব্যস্ত।

মন্ত্রী এসময় বাংলাদেশের স্বাধিকার আন্দোলনসহ দেশ-মাতৃকার জন্য বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের অবদান যথাযথভাবে তুলে ধরতে গবেষকদের প্রতি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘বিশ্বের সকল কল্যাণের অর্ধেক নর আর অর্ধেক নারীর অবদান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জাতির পিতা হয়ে ওঠার পেছনেও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের অবদান কখনও ভুলবার নয়।’

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সারাহ বেগম কবরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বিশেষ অতিথি হিসেবে এবং আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম স্বপনসহ নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন ।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close