দেশবাংলা

আটক ডাকাত থানায় গিয়ে ছিচকে চোর, জনমনে ক্ষোভ

কৌশলে চালককে হাত-পা বেঁধে ধান ক্ষেতে ফেলে ইজিবাইক নিয়ে পালানোর সময় স্থানীয় জনতা কর্তৃক দুই ব্যক্তিকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। কিন্তু থানা চুরির মামলা দেখিয়ে দুই ডাকাতকে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় জনমনে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। শুরু হয়েছে বিভিন্ন আলোচনা সমালোচনা।

১৯ অক্টোবর তারিখে বগুড়া সোনাতলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের রানীরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে এক ইইজিবাইক চালককে চরপাড়া বাজার থেকে সোনাতলায় যাওয়ার জন্য ভাড়া করে নিয়ে রানীরপাড়া স্কুলের পার্শ্বে অটোতে থাকা ৩ জন যাত্রী চালককে ভয় দেখিয়ে জিম্মি করে স্কুল থেকে বোয়ালমারী মাঠের মধ্যবর্তী স্থানে নিয়ে গেলে সেখান থেকে আরো ৩ জন বের হয়ে চালকের হাত-পা মুখ বেধে একটি ধান ক্ষেতে রেখে অটো নিয়ে চলে যায়।

স্থানীয়রা জানান, ছিনতায়ের পর অটোটি সুজাইতপুর রেলগেটে পৌছে রাস্তা ভুল করে একটি ষ্টলের মধ্যে ঢুকে গেলে স্থানীয় জনতা তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তাদের এলোমেলো কথায় সন্দেহ হয়। এর কিছুক্ষনের মধ্যে ডাকাতির ঘটনা জানাজানি হলে জনগণ পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে ছিনতাইকারী ২ জনকেসহ ইজিবাইকটি থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ- আল মাছউদ এর সাথে মুঠো ফোনে কথা বললে তিনি জানান, এ ঘটনায় একটি চুরির মামলা হয়েছে ও দুই আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। নৃশংস ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জানতে চাইলে তিনি আরও জানান, এ রকম বিষটি আমাদের অজনা তবে ভিকটিমকে নিয়ে এসে আবারো জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যেমে বিষয়টি সম্পূর্ণ জানা যাবে।

পুলিশের এমন কর্মকান্ডে একদিকে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে স্থানীয়দের মাঝে। অন্যদিকে আতঙ্কে ভুগছেন এলাকাবাসী। তাদের দাবী দোষীদের উপযুক্ত বিচারের মাধ্যেমে সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া দরকার।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close