দেশবাংলা

কসবায় দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মাল্টা চাষ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মাল্টা চাষ। সাইট্রাস জাতীয় এ ফল চাষ করে এলাকার অনেক যুবকের কর্মসংস্থান হয়েছে। বিদেশ থেকে ফিরে অনেকেই নিজেদের জড়িত করছেন মাল্টা চাষে।

কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছেন অনেকে। এ ফল দেশের চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানীও সম্ভব বলে মনে করেন চাষীরা।

২০১৭ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় প্রথম মাল্টা চাষ শুরু হয়। দিনদিন বাড়ছে বাগানের সংখ্যা। সীমান্তবর্তী গ্রাম রামপুরের কৃষক তাজুল ইসলাম ও তার দুই ছেলে এ ফলের চাষ করছেন। বেকারত্ব দূর করার পাশাপাশি ভাল উপার্জন করছেন তারা।

প্রথমে তারা বাগানে মাল্টা এবং কমলার  প্রায় ১শ টি চারা রোপর করেন। বাগান করতে খরচ হয়েছে ১ লাখ টাকা। ইতোমধ্যে প্রায় ১ লাখ টাকার মাল্টা বিক্রিও করেছেন। নিজের বাগান ছাড়াও অন্যদের মাল্টা চাষে উৎসাহিত করছেন তাজুল ও তার ছেলে এরশাদ মিয়া।

এ এলাকা মাল্টা চাষের জন্য উপযুক্ত হওয়ায় চাষিদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে বলে জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো.মাজেদুর রহমান।

মাল্টা চাষ বৃদ্ধির মাধ্যমে পুষ্টির চাহিদা পূরন ও এলাকার বেকারত্ব দুরীকরণে সরকারের সহযোগিতা চাইলেন চাষীরা।

রুবেল আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা প্রতিনিধি 

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close