দেশবাংলা

শহীদ আসাদ দিবসে সরকারি ছুটি ঘোষণার দাবি

এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন, ২০ জানুয়ারি। এই দিনে ঐতিহাসিক ১১ দফা আন্দোলনের অগ্রনায়ক নরসিংদীর শিবপুর থানার আমান উল্লাহ মোহাম্মদ আসাদ, ৬৯-এর তৎকালীন স্বৈরাচারী আইয়ুব সরকারের বিরুদ্ধে, ঢাকা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের হরতাল চলাকালে পাকিস্তান পুলিশ এবং ইপিআর বাহিনীর বুলেটের আঘাতে নিহত হন।

তাঁর সম্পর্কে পাঠ্যবইয়ে বিস্তারিত তুলে ধরা ও দিবসটিকে সরকারী ছুটি ঘোষণার দাবি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের।

শহীদ আসাদ, ১৯৪২ সালের ১০ জুন নরসিংদীর শিবপুর থানার ধানুয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানে রাজপথে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন এই বীর সেনানী। ১৯৬৯ সালের ২০ জানুয়ারি আইয়ুব শাসনের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে পাক পুলিশ-ইপিআরের বিরুদ্ধে একটি শোভাযাত্রা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন থেকে বের হয়ে, ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে এলে পাক পুলিশের গুলিতে শহীদ হন, আসাদ।

গণতন্ত্রের জন্য শহীদ আসাদের আত্মদান আগামী প্রজন্মকে জানাতে পাঠ্যবইয়ে তুলে ধরা এবং দিনটিকে ছুটি ঘোষনার দাবি সব মহলের।

এদিকে, শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ৬৯ এর গণ অভ্যুত্থানের মহানায়ক শহীদ আসাদ স্মরণে বিভিন্ন কর্মসুচির আয়োজন করা হয়। সকালে শহীদ আসাদ গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ এবং সরকারী শহীদ আসাদ কলেজের শিক্ষক-শীক্ষার্থীসহ রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আসাদের নিজ বাড়ি নরসিংদীর শিবপুরে তার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

পাঠ্যপুস্তকসহ সাধারন মানুষের দোড়গোড়ায় আসাদের ত্যাগ ও অবদান ছড়িয়ে দেয়ার দাবিতে শিক্ষাবীদরা। দিনটি স্বরণে সরকারী ছুটি ঘোষনায় সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নেবে এমন চাওয়া মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ দেশবাসী।

শরীফ ইকবাল, নরসিংদী প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close