অন্যান্যদেশবাংলাবাংলাদেশ

করোনার আতঙ্কে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল

করোনার মহামারি আতঙ্কে পাল্টে গেছে সিরাজগঞ্জে ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের চিত্র। ফাঁকা হয়ে গেছে বিভিন্ন ওয়ার্ড ও কড়িডোর। নেই চির-চেনা কোলাহলমুখর রোগী ও স্বজনদের পদচারণা। এমন পরিস্থিতির মাঝে করোনা রোধে সুরক্ষা ব্যবস্থা অপ্রতুল হলেও,ঝুঁকি নিয়ে সেবা দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। করোনা থেকে বাঁচতে সামাজিক দুরুত্ব বজায় না রাখলে, পরিস্থিতি মোকাবেলা করা যাবেনা, বলছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

 সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের বর্হিঃবিভাগ, আন্তঃবিভাগ ও জরুরী বিভাগের। কয়েকদিন আগেও এসব বিভাগ জমজমাট ছিল রোগী ও স্বজনদের ভীড়ে। প্রতিটি ওয়ার্ড ও করিডোরেও সেবা দেয়া মুশকিল হতো। বেড সংকটে বারান্দাতে ঠাঁই হতো একাধিক রোগীর।

করোনার মহামারিতে পাল্টে গেছে জেলার প্রধান এই হাসপাতালের চিত্র। যেসব রোগী ভর্তি আছে তাদের স্বজনদের উপস্থিতিও একেবারেই কম। সব মিলিয়ে এখানে বিরাজ করছে সুনশান নিরবতা। এই পরিস্থিতিতেও চিকিৎসা পাচ্ছেন রোগীরা। কেউ আবার জানিয়েছেন মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

এদিকে সুরক্ষা ব্যবস্থা অপ্রতুল হওয়ায় আতঙ্কে রয়েছেন দায়িত্বরত চিকিৎসক ও সেবিকারা। ঝুঁকি নিয়ে রোগীদের সেবা দিচ্ছেন তারা। করোনা আতঙ্কে রোগী কমে গেছে বলে মনে করছেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার

করোনা থেকে বাঁচতে সামাজিক দুরত্বের বিকল্প নেই জানিয়ে, জেলায় এখন পরযন্ত কোন করোনা রোগী সনাক্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন। হাসপাতালের পরিসংখ্যান বিভাগের তথ্যমতে, প্রতিদিন নানা রোগ নিয়ে ১৭০ থেকে ১৮০ জন রোগী ভর্তি হতো। গত এক সপ্তাহে ভর্তি হয়েছেন মাত্র ৫০জন।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close