বিশ্ববাংলা

স্পেনে দীর্ঘ দেড় মাস পর রাস্তায় শিশুরা

স্পেনে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে গত ১৫ মার্চ লকডাউনের ঘোষণা দেয় দেশটির সরকার। পরে মানসিক স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় নিয়ে, লকডাউন কিছুটা শিথিল করলে দীর্ঘ দেড় মাস পর রাস্তায় বের হয় শিশুরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলে আগামী ২ মে থেকে সীমিত সময়ের জন্য বয়ষ্করাও রাস্তায় বের হতে পারবে বলে নিশ্চিত করেছে সরকার।

কঠোর নিয়মশৃঙ্খলা অব্যাহত রেখে স্পেন সরকার গেল সপ্তাহে ঘোষণা দেয়, ২৬ এপ্রিল থেকে কমবয়সী শিশু-কিশোরদের স্বার্থে, দেশটিতে লকডাউনে কিছুটা শিথিলতা থাকবে। এতে করে খানিকটা স্বস্তি আসে টানা ছয় সপ্তাহ গৃহবন্দী থাকা স্পেনীয় জনগোষ্ঠীসহ, প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে।

মানসিক স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে স্পেন সরকা্রের দেয়া এই নতুন নির্দেশনার পর, রোববার শিশুদের বাড়ির বাইরে বের হতে দেখা যায়। দীর্ঘ দেড় মাস পর স্পেনের রাস্তাগুলো মুখরিত ছিল শিশু-কিশোরদের কোলাহল আর উচ্ছাসে। স্কুটার, সাইকেল, বল আর মানুষের পদচারণায় পরিপূর্ণ ছিল দেশটির ব্যস্ততম রাস্তা, পার্ক, সমুদ্র সৈকতসহ খোলামেলা সব স্থানগুলো।

সরকারের এ সিদ্ধান্তে সন্তোষ জানান, প্রবাসীরা। অন্যদিকে, করোনা মহামারির কারণে তৈরি হওয়া সামাজিক দূরত্বের কারণে হুমকির মুখে পড়েছে স্পেনের অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। ক্ষতির মুখে পড়েছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা। আগামী ২ মে থেকে সংক্ষিপ্ত হাটা বা পায়চারি করার জন্য বয়ষ্করাও রাস্তায় বের হতে পারবে বলে নিশ্চিত করেছে সরকার। তবে এর মধ্যে যদি কোন ধরণের সংক্রমন বৃদ্ধির প্রাদুর্ভাব থাকে তাহলে সময় পরিবর্তন হতে পারে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close