দেশবাংলা

সারাদেশে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

সারাদেশে বেড়েই চলেছে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। বিভিন্ন জায়গায় বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা কঠোরভাবে মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা সন্দেহে আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি খাদিজা নামে ৬৫ বছর বয়সী এক নারী ভোরে মারা গেছেন। হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পার্সন ডাক্তার শৈলেন্দ্রনাথ বিশ্বাস জানান, খাদিজা কিডনী, ডায়বেটিস, জ্বর ও সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত ছিলেন। তার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

নড়াইলে করোনা উপসর্গ নিয়ে ঢাকা থেকে আসা ৫০ বছর বয়সী বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।বরিশালে ২৫ বছর বয়সী এক যুবকসহ নতুন করে ২জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫০ জনে। দিনাজপুরের বিরামপুরে ৩০ বছর বয়সী এক নারী ও দুই যুবকের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে দিনাজপুরে মোট ৪১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হলো। এরা ৩ জন গত ৭ তারিখে গাজীপুর থেকে তার নিজ বাড়ি বিরামপুর আসে। কেরানীগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ২৮ জন করোনা পজেটিভ হয়েছেন। এনিয়ে কেরানীগঞ্জে ২৯৪ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হলেন। আক্রান্ত ২৯৪ জনের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের আর সুস্থ্য হয়েছেন ২৬ জন।

চাঁদপুরে ৫ পুলিশ সদস্যসহ ১২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৬জন। সিভিল সার্জন ডা. মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ এতথ্য জানান। গত ৬ মে রাঙামাটিতে যে চারজনের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিলো তাদের মধ্যে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে দায়িত্বরত একজন নার্সের দ্বিতীয়বারের করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

বাকি ৩ জনের রিপোর্ট এখনো আসেনি। ওই নার্সের সংস্পর্শে থাকা ৯ জন ডাক্তার ও নার্সের রিপোর্টও নেগেটিভ এসেছে বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন অফিসের করোনা ইনচার্জ ডা: মোস্তফা কামাল।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close