দেশবাংলা

‘বেশি বুঝলে মোটেও পাবেন না’

এক বিধবা গৃহপরিচারিকাসহ কমপক্ষে ১৫টি বিধবা ভাতার টাকা আত্মসাৎ করেছে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ সোনালী ব্যাংক শাখা। অবশেষে অত্র অঞ্চলের সাংসদের হস্তক্ষেপে ব্যাংক কতৃপক্ষের ভুল বলে ১৫ জন বিধবা নরীর টাকা ফেরত দেয়।

জানা যায়, আখিরন নেছা নামে বৃদ্ধা মহিলা গৃহপরিচারিকা গত সোমবার সোনালী ব্যাংক ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শাখায় গিয়েছিলেন সরকারের দেয়া বিধবা ভাতার টাকা উত্তোলন করতে। তার পাওনা ৪ হাজার ৫’শ টাকা। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বইতে ৪ হাজার ৫’শ টাকা প্রদান লিখলেও তার হাতে তুলে দিয়েছিলেন ৩ হাজার টাকা।

বাকি টাকার কথা জানতে চাইলে বলা হয়েছে বেশি বুঝলে মোটেও পাবেন না। একইভাবে কদবানু এর হাতেও ৪ হাজার ৫’শ টাকার পরিবর্তে দেয়া হয়েছে ৩ হাজার। তাকেও বলা এই টাকা নিলে নেন, না নিলে চলে যান। পরে স্থানীয় সাংসদ আনোয়ারুল আজীম আনারের তাৎক্ষনিক পদক্ষেপে বেশ কয়েকজন বিধবা নারী তাদের বাকি ১ হাজার ৫’শ টাকাও ফেরত পেয়েছেন।

সাংসদ আনোয়ারুল আজীম বলেন, অসহায় দরিদ্র মানুষের জন্য সরকারের দেয়া এই টাকা আত্মসাতের উদ্দেশ্যেই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের হাতে কম টাকা তুলে দিয়েছেন। পরে তার উপস্থিতিতে ১৫ জনের বাকি ১ হাজার ৫’শ করে টাকা দেয়া হয়েছে। তার দাবি আরো অসংখ্য মানুষের সঙ্গে এটা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক শামীম রেজা জানান, অনেক কাজের মধ্যে এই কাজটি করতে গিয়ে তার অফিসাররা ভুল করেছেন। পরে সব সমাধান করে ফেলা হয়েছে।তারপরও বিষয়টি নিয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান। সূত্র: আমাদের সময়.কম

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button