দেশবাংলা

বিদ্যালয়ের বারান্দা মাদকসেবীদের আখড়া

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালাইয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের সিঁড়ি ও বারান্দা মাদকসেবীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। প্রতিনিয়ত সেখানে বসে মাদকসেবন আর অশ্লীল কথাবার্তা বলায় অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন এলাকাবাসী। মাদক সেবীদের হাতে হেনস্তার ভয়ে প্রতিবাদ করছেন না এলঅকাবাসী। এমনকি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে জানিয়ে সুফল পাচ্ছেন না।

জানা গেছে, উপজেলার কালাইয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পূর্ব পাশের একাডেমিক ভবনের দোতলার সিঁড়ি ও বারান্দায় মাদক সেবীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। এ সকল মাদক সেবীরা অধিকাংশই কিশোর বয়সী।

রোববার বিকালে এলাকাবাসীর গোপনে ধারন করা মাদক সেবনের একটি ভিডিও ক্লিপ পাওয়া গেছে। ওই ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, ৫ কিশোর গাঁজা সেবন করছে। মাঝে মধ্যে এদিক ওদিক তাকিয়ে তারা সর্তকতা অবলম্বন করছে। ওই মাদকসেবীরা সবাই সদ্য এসএসসি পাশ করা শিক্ষার্থী বলে দাবি করেন এলাকাবাসী।

করোনার কারনে বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সমবয়সী এসব কিশোররা প্রতিনিয়ত এখানে এসে মাদক সেবন করছে। আর অশ্লীল ভাষায় একে অপরের সঙ্গে কথাবার্তা বলছে। ফলে বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার একাধিক পরিবার বিপাকে পড়েছেন। এলাকাবাসী দ্রুত ওই মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে কালাইয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসী শিরিন বলেন, বিষয়টি আমি একাধিকবার থানা পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদেরকে অবহিত করেছি। কিন্তু কোন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না। বিদ্যালয় এলাকাটি নিয়মিত বখাটে আর মাদকসেবীদের আড্ডায় পরিণত হওয়ায় আমি বিব্রত।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিদ্যালয় কতৃপক্ষ বিষয়টি আমাকে অবহিত করেনি। অবহিত করলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button