প্রধানমন্ত্রীবাংলাদেশ

সীমান্তে অপরাধ দমনে সদা সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

সীমান্তে অপরাধ দমনে বিজিবিকে সদা সতর্ক থাকতে হবে। এজন্যই আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার মাধ্যমে বিজিবিকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার অ্যান্ড কলেজের (বিজিটিসিঅ্যান্ডসি) বীরউত্তম মজিবুর রহমান প্যারেড গ্রাউন্ডে বিজিবির ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করে কুচকাওয়াজে অভিবাদন গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী। সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রীয় সালাম প্রদানের মধ্য দিয়ে নবীন সৈনিককদের শপথ গ্রহণ ও কুচকাওয়াজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।

এসময় তিনি বলেন, বিজিবিকে শক্তিশালী করতে এরইমধ্যে ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ভিশন ২০৪১’ প্রণয়ন করে তা বাস্তবায়ন শুরু করেছি। এজন্য হেলিকপ্টার কেনা হয়েছে, উত্তমমানের জলযান নেয়া হচ্ছে। এছাড়া, ধাপে ধাপে আরও ১৫ হাজার জনবল নেয়া হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, সততা, বুদ্ধিমত্তা, নির্ভরযোগ্যতা, আনুগত্য, তেজ ও উদ্দীপনা একটি বাহিনীর শৃঙ্খলা ও পেশাগত দক্ষতার মাপকাঠি। নবীন সৈনিকদের মধ্যে এসব গুণাবলীর প্রতিফলন সকলকে অনুপ্রাণিত ও মুগ্ধ করেছে। এসময়, জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত হতে এবং বিজিবির মূলনীতির প্রতি নবীন সৈনিকদের গুরুত্ব আরোপের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘যে কোন বাহিনীর একজন সৈনিকের মূল পরিচিতি হচ্ছে শৃঙ্খলা। বাংলাদেশ একটি আদর্শ নিয়েই স্বাধীন হয়েছে। সেই আদর্শ, আদেশ ও কর্তব্য পালনে যে কখনো পিছপা হয় না সেই প্রকৃত সৈনিক।’

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button