দেশবাংলা

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রতারণার অভিযোগে চিকিৎসকে জরিমানা

ঠাকুরগাঁওয়ে পরিচয় গোপন করে হোমিও প্যাথি চিকিৎসার আড়ালে এলোপ্যাথি চিকিৎসা দেয়াসহ প্রতারণার অভিযোগে মোহাম্মদ রিপন নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শনিবার(৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় শহরের বিআরটিসি বাসস্ট্যান্ড এলাকার এস এ টাওয়ারে অভিযান পরিচালনা করে জরিমান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী মেজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন। ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে আজ এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

পুলিশ জানায়, কয়েক বছর ধরে হোমিও প্যাথি চিকিৎসার আড়ালে রিপন ঠাকুরগাঁও শহরের এস এ টাওয়ারে সদৃশ ফার্মেসী এন্ড কনসালটেন্ট সেন্টার, রানীশংকৈল উপজেলার মাহফুজ মেডিসিন স্টোর, দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জে সদৃশ কনসালটেন্ট সেন্টার ও পঞ্চগড় জেলার সদৃশ কনসালটেন্ট সেন্টার নামে চারটি স্থানে চেম্বারে নিয়মিত চিকিৎসা দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিল।

এসময় তিনি দায় স্বীকার করলে আগামী সাত দিনের মধ্যে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি একজন হেমিও প্যাথি চিকিৎসক হয়ে এলোপ্যাথি চিকিৎসকের একই ব্যবস্থা পত্রে নাম ব্যবহার করছিল। এরপর থেকে তিনি কোন স্থানে হোমিও চিকিৎসা ছাড়া অন্যকোন চিকিৎসা সেবা দিতে পারবেন না মর্মেও দায় স্বীকার করেন।

এছাড়া তার প্রতিটি সাইনবোর্ডে বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে হোমিও চিকিৎসার কথা উল্লেখ্য করে চিকিৎসা দিবেন। তা না করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সাধারণ মানুষ তার প্রতারনার শিকার হয়েছে। সে দ্বায় স্বীকার করায় সংশোধনের সুযোগ দেয়া হয়েছে। তারপরেও এমন কার্যক্রম পরিচালনা করলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মামুনুর রশিদ, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button