বিশ্ববাংলা

খুব সহজে সপরিবারে স্থায়ী বসবাসের সুযোগ পর্তুগালে

আটলান্টিক মহাসাগরের দুইটি স্বায়ত্তশাসিত দ্বীপপুঞ্জ আসোরেস এবং মাদেইরা দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে গঠিত পর্তুগালের রাজধানী লিসবন। এখানে ডি-৭ ক্যাটাগরি ভিসায় আবেদন করে স্থায়ী হওয়ার সুযোগ পেতে পারেন।

পর্তুগাল ইউরোপের বাইরের তৃতীয় দেশের ক্ষেত্রে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়াটা খুবই সহজ এবং নমনীয় যে কেউই খুব সহজেই এখানে থাকার ইচ্ছা পোষণ করলে ন্যূনতম শর্তে বসবাস করার সুযোগ পায়। ইউরোপের বিভিন্ন দেশে অবৈধভাবে বসবাসরত প্রবাসীরাও চাইলে পর্তুগালে এসে বৈধতা নিতে পারেন।

বিশেষ করে যাদের হস্তান্তরযোগ্য সম্পত্তি, রিয়েল এস্টেটে, ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি বা বিনিয়োগে সক্ষম তারাই এই ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে এই ভিসা ক্যাটাগরিতে বিনিয়োগের কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।

ভিসা পাওয়ার পরে প্রথমে দুই বছরের রেসিডেন্ট পারমিট যা নবায়নযোগ্য এবং ৫ বছর পরে নাগরিকত্ব আবেদন করতে পারবে। তাছাড়া পরিবারের সকল সদস্যদের এর আওতায় নিয়ে আসতে পারবে। এই ভিসার অন্যতম শর্ত হলো আবেদনকারীদের ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাহিরের নাগরিক হতে হবে। গ্রহণযোগ্য নিয়মিত একটি অর্থনৈতিক অবস্থা থাকতে হবে এবং স্ব স্ব দেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স রিপোর্ট প্রদান করতে হবে।

বাৎসরিক ৭৬২০ ইউরোর ওপর আয়ের প্রমাণ দাখিল করতে হবে। পরিবারের প্রতি প্রাপ্ত বয়স্ক সদস্যের জন্য ৩৮১৬ ইউরো এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২২৯২ ইউরো আয়ের প্রামাণিক দলিল উপস্থাপন করতে হবে। র্তুগালে বসবাসের পাশাপাশি কাজ, পড়াশোনা এবং ইউরোপের সেনজেনভুক্ত দেশ সমূহে অবাধ চলাচলের সুযোগ থাকবে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button