দেশবাংলা

টঙ্গীতে অপহরণের পর পালাক্রমে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

গাজীপুরের টঙ্গী থেকে কৌশলে এক গৃহবধূকে অপহরণের পর পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এঘটনায় গত শুক্রবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সৈয়দ রায়হান হোসেন ওরফে সাদ্দাম, মোঃ আব্দুর রহমান ও মোঃ জসিমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শনিবার দুপুরে গাজীপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এসময় পুলিশ ধর্ষণের ভিডিও ধারণকৃত একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে।

মামলা সূত্রে জানা যায় ওই গৃহবধূ টঙ্গী দত্তপাড়া আলম মার্কেট এলাকায় স্বামী মোঃ মিলনকে নিয়ে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। গত ১০ ডিসেম্বর তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ওই গৃহবধূকে তার স্বামী তালাক দেয়ার হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি মিমাংসা করে দেওয়ার কথা বলে গৃহবধূর স্বামী মিলনের বন্ধু রায়হান পরের দিন দত্তপাড়া রিয়া গার্মেন্টস এর মোড়ে ডেকে নেয়।

সেখান থেকে কৌশলে একটি সিএনজিতে উঠিয়ে রায়হান ঢাকার নতুন বাজার এলাকায় ভাড়াকৃত বাসার একটি রুমে আটক রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করে। এছাড়া ধর্ষণের ঘটনা ফাঁস করলে গৃহবধূর অশ্লিল ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল করে দেয়ার হুমকি দেয়।

পরে ওই গৃহবধূকে একটি সিএনজি করে টঙ্গীতে পাঠিয়ে দেন। এরপর গৃহবধূ গত শুক্রবার টঙ্গী পূর্ব থানায় অপহরণ পূর্বক গণধর্ষণের একটি মামলা করেন। পরে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত তিন ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন এবং নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে বলে জানান।

তাওহীদ কবির, টঙ্গী প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button