আন্তর্জাতিকজনদুর্ভোগ

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন শনাক্তে বিশ্বব্যাপী উদ্বেগ

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন শনাক্তে,বিশ্বব্যাপী আরেকদফা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ব্রিটেনের দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্বে একটি নতুন ধরণের এবং অধিক সংক্রামক করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর বিভিন্ন দেশ যুক্তরাজ্যের সাথে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, করোনার এ নতুন ধরণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি। বিদ্যমান ব্যবস্থাগুলো প্রয়োগ করে এটি নিয়ন্ত্রণে রাখা যেতে পারে।

সারাবিশ্বে বছরজুড়েই আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। প্রতিদিন বাড়ছে মৃতের সংখ্যা।সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ধরন শনাক্তের পর, আবারো উ্দ্বেগ দেখা দিয়েছে। করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগের খবরে যখন স্বাভাবিক জীবনে ফেরার অপেক্ষার অবসানে আশা, ঠিক তখনই ইংল্যান্ডে করোনার নতুন মাত্রা। মহামারি করোনাভাইরাসের পরিবর্তিত নতুন ধরন ব্রিটেনের ভ্যাকসিন গবেষণাগার থেকে ছড়িয়ে থাকতে পারে জানিয়েছে দেশটির এক গবেষক।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লন্ডন ও উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডে আক্রান্ত দুই ব্যক্তি সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করে এসেছেন, এমন ব্যক্তিদের সংস্পর্শে এসেছিলেন। ইতোমধ্যে ভাইরাসটি নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যাপক উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। নতুন ভাইরাসটির সঙ্গে, যুক্তরাজ্যে শনাক্ত হওয়া নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনাভাইরাসের মিল রয়েছে। যদিও ভাইরাসটি দুটি আলাদাভাবে বিবর্তিত হয়েছে। দুটি ভাইরাসেরই এন ফাইভ জিরো ওয়ান ওয়াই নামে একটি অভিন্ন মিউটেশন হয়েছে, যা মানবদেহের কোষে সংক্রমণ ঘটাতে সক্রিয় ভূমিকা রাখে।

এছাড়া বড়দিন ও নতুন বছর উদযাপন করতে প্রিয়জনদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করতে একদেশ থেকে অন্যদেশে যাচ্ছেন মানুষ। তবে অস্বাভাবিক হারে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়া, আর ব্রিটেনে নতুন করোনার আবির্ভাবে সতর্ক থাকতে তৃতীয়বারের মতো লকডাউন ঘোষণা দিয়েছে আইরিশ সরকার।

নতুন ধরণের করোনাভাইরাস মিলেছে হংকংয়েও। যুক্তরাজ্য থেকে দুই শিক্ষার্থী দেশটিতে ফিরলে তাদের শরীরে এই নতুন ভাইরাসটি শনাক্ত হয়। এটি ছড়িয়েছে ইতালিতেও। এরইমধ্যে ফাইজারের টিকার অনুমোদন দিয়েছে দেশটি।

এদিকে, করোনা মহামারির সবচেয়ে ভয়াবহ সময় পার করছে যুক্তরাষ্ট্র। গেল সপ্তাহে দেশটিতে কোভিড নাইনটিনে, প্রতি ৩৩ সেকেন্ডে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে একজন । বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বিশ্লেষণ, ১৪ থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত হয়েছে এ বিপুল প্রাণহানি।

আন্তর্জাতিক চলাচলের কারণে এই নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনাভাইরাস বাংলাদেশেও ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে গবেষকদের। বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য সর্তকর্তামূলক ব্যবস্থা জোরদার করা হচ্ছে।

 

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button