দেশবাংলা

দ্বিতীয় স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামী ও প্রথম স্ত্রীর মৃত্যুদন্ড

মেহেরপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামী সাইদুল ইসলাম ও ১ম স্ত্রী জমেলা খাতুনকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। সোমবার দুপুরে জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ আদেশ দেন। তবে আসামীরা এখনও পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরনে জানা যায়, ২০১০ সালের ৩১ জানুয়ারী শহরের গোরস্থানপাড়ার ২য় স্ত্রী জরিনা খাতুনকে সদর উপজেলার যাদবপুর গ্রামে প্রথম স্ত্রী জমেলা খাতুনের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায় স্বামী সাইদুল ইসলাম। পরে রাত থেকে নিখোঁজ হন জরিনা খাতুন।

৬ ফেব্রুয়ারী বিকেল ঐ গ্রামের মশুরি ক্ষেত থেকে মাটিতে পোতা অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে জানা যায় তাকে জবাই করার পর মাটিতে পুতে রাখা হয়েছে। ঐ দিন রাতে তার বোন ফেরদৌসি খাতুন বাদি হয়ে স্বামী সাইদুল ইসলামসহ অজ্ঞাতনামাদের আসামী করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

৬ মে স্বামী ও তার প্রথম স্ত্রী জমেলা খাতুনকে আসামী করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তৎকালীন থানার এস.আই হাসান ইমাম। দীর্ঘ এ সময়ে ১৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে দুপুরে স্বামী ও প্রথম স্ত্রীকে মৃত্যুদন্ডাদেশ দেন আদালত। তবে তারা পলাতক রয়েছে।

আকতারুজ্জামান, মেহেরপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button