বাংলাদেশঅন্যান্য

ভ্যাকসিন ক্রয়-বিতরণ প্রকল্পে একনেকের অনুমোদন

৫ হাজার ৬৫৯ কোটি টাকা ব্যয়ে করোনা ভ্যাকসিন ক্রয়, সংরক্ষণ ও বিতরণে অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (একনেক)। গণভবন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সংক্রান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। এদিকে, করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগে ১৩৭ পৃষ্ঠার নীতিমালা চূড়ান্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

করোনা ভ্যাকসিন ক্রয়, সংরক্ষণ ও বিতরণে ৫ হাজার ৬৫৯ কোটি টাকায় অনুমোদন দিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ সভায় প্রকল্পটি চূড়ান্তভাবে অনুমোদন দেয়া হয়।

মূলত ভ্যাকসিন কেনার জন্যই চলমান প্রকল্পের আওতায় এই অর্থ অনুমোদন দেয়া হলো। গণভবন থেকে সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। অন্যদিকে, শেরে-বাংলা নগরে মন্ত্রিসভা কমিটি পরিষদ (এনইসি) সম্মেলনকক্ষে উপস্থিত ছিলেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী-সচিবরা।

২০২১ সালের জুন পর্যন্ত ৩ হাজার ৩০ কোটি টাকা খরচ হবে ভ্যাকসিন কিনতে। বাকি অর্থ পর্যায়ক্রমে খরচ হবে প্রকল্পের আওতায়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-ডিসেম্বরের মধ্যে, লক্ষমাত্রা অনুযায়ী ভ্যাকসিন পাওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে পরিকল্পনা কমিশনকে অবগত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে, কোনো দেশ থেকে ভ্যাকসিন সরবরাহ করা হবে তা এখনো নিশ্চিত জানা যায়নি।

সভা শেষে স্বাস্থ্য সচিব জানান, করোনা ভ্যাকসিন আনতে দেরি হবে না। ভ্যাকসিন বিষয়ে ভারত-বাংলাদেশ সরকার অবগত আছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে, ভ্যাকসিন প্রয়োগে ১৩৭ পৃষ্ঠার নীতিমালা চূড়ান্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এর আগে সোমবার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন বাংলাদেশে জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেয় ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর।

হাকিম মোড়ল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button