দেশবাংলা

টঙ্গীতে মাদক কারবারির আত্মসমর্পণ

গাজীপুরে টঙ্গীর শীর্ষ মাদক কারবারি মাহবুবুর রহমান স্বপন (৩৫) টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশের কাছে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করেন।

জানা গেছে, জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার বুলকার চর গ্রামের আব্বাস আলীর ছেলে স্বপনের বিরুদ্ধে গাজীপুরের টঙ্গী থানায় মাদক কারবারি, হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধে অন্তত ২৩টি মামলা রয়েছে।

২৩টি মামলায় সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। পরোয়ানার আদেশপত্র টঙ্গী পশ্চিম থানায় এলে পুলিশ তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালায়। এরই মধ্যে স্বপন স্বেচ্ছায় সুস্থ জীবনে ফিরে আসতে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭ নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিনের মাধ্যমে আত্মসমর্পণের আবেদন জানান।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিনের কার্যালয়ে কাউন্সিলরসহ প্রচুর সংখ্যক লোকের উপস্থিতিতে আসামি স্বপন টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলমের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। এ সময় তাকে ফুল দিয়ে বরন করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ আলম বলেন, তিনি গাজীপুরের টঙ্গী মাজার বস্তি এলাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে থাকতেন। সেখানেই তিনি মাদক কারবারসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়েন। টঙ্গী পশ্চিম থানায় তার বিরুদ্ধে ২৩টি মামলা রয়েছে। তিনি স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করলেও তার বিরুদ্ধে পৃথক ২৩ গ্রেফতারি পরোয়ানা থাকায় তাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (টঙ্গী জোন) আশরাফ উল ইসলাম বলেন, আসামি স্বপন এখন অনুতপ্ত। আমাদের কাছে কথা দিয়েছে সে সুস্থ জীবনে ফিরে আসতে চায়। আইনি প্রক্রিয়া মেনে এবং স্বেচ্ছায় সুস্থ জীবনে ফিরে আসা ব্যক্তিদের নিয়ে বর্তমান সরকারের নানামুখী উদ্যোগের আলোকে আমরা চেষ্টা করে দেখবো তার জন্য কিছু করা যায় কিনা।

তাওহীদ কবির, টঙ্গী প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button