আন্তর্জাতিকযুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমার ইস্যুতে জরুরি বৈঠকে বসছে নিরাপত্তা পরিষদ

মিয়ানমার পরিস্থিতি নিয়ে আজ (মঙ্গলবার) জরুরি বৈঠকে বসছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থানের পরিপ্রেক্ষিতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

এ ঘটনাকে গণতান্ত্রিক সংস্কারের পক্ষে বড় ধাক্কা বলে মনে করছেন জাতিসংঘ। দেশটিতে বসবাসরত রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখলের পর কার্যত স্থবির হয়ে পড়েছে মিয়ানমার।

দিনে জরুরি অবস্থা ও রাতে কারফিউয়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করে দেশজুড়ে। তবে ইয়াঙ্গুনের পার্শ্ববর্তী চায়না টাউনে মানুষজনের চলাচল থাকলেও স্বাভাবিকের তুলনায় তা একেবারেই কম। এছাড়া ইন্টারনেট সেবা সীমিত করায় বহির্বিশ্ব থেকে বর্তমানে প্রায় বিচ্ছিন্ন মিয়ানমার।

এদিকে, উদ্ভুত পরিস্তিতি মিয়ানমারের উপর আবারো নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, জোর প্রয়োগ করে জনগণের ইচ্ছাকে উপেক্ষা করা কখনোই উচিত নয়।

এর আগে গত দশকে মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া শুরুর পর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার সেনা অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। ২৪ জন মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীকে সরানো হয় তাদের পদ থেকে।

এ পর্যন্ত অর্থ, স্বাস্থ্য, স্বরাষ্ট্র এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ ১১টি পদে সেনা সদস্যদের নিযুক্ত করেছেন সেনা প্রধান মিন অং লাইং। মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পর অর্থ, স্বাস্থ্য, স্বরাষ্ট্র এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ ১১টি পদে সেনা সদস্যদের নিয়োগ দিয়েছেন দেশটির সেনা প্রধান মিন অং লাইং।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button