দেশবাংলা

শ্বশুরকে হত্যার দায়ে জামাইয়ের মৃত্যুদন্ডাদেশ

পিরোজপুরের ইন্দুকানীতে ২০১৮ সালে চাচাতো শ্বশুরকে হত্যার দায়ে জামাইয়ের মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। সোমবার দুপুরে পিরোজপুরের দায়রা জজ মোঃ মহিদুজ্জামান এ আদেশ দেন। আদালত সাজাপ্রাপ্তকে আরও ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করেন।

রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত কাঞ্চন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সাজাপ্রাপ্ত মোঃ হাসিবুল ইসলাম ওরফে কাঞ্চন (৩৪) পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার খোলপটুয়া গ্রামের মোঃ আবু বকর বেপারীর ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার চন্ডিপুর কেসি টেকনিক্যাল কলেজের অফিস সহকারী রেজাউল করিম হাওলাদার ওরফে রিপনের (৪০) এক চাচাতে ভাই আব্দুল খালেকের এক মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার বিষয় নিয়ে ওই মেয়ের স্বামী কাঞ্চনের সাথে রিপনের দ্বন্দ্ব ছিল।

এছাড়া কাঞ্চন তার স্ত্রীকে মারধোর করায় সে বাবার বাড়িতে চলে আসে। এ ঘটনায় কাঞ্চন মারাত্মকভাবে রিপনের উপর ক্ষিপ্ত হয়। এরই জেরে ২০১৮ সালের ১৮ নভেম্বর বিকেলে রিপন উপজেলার চন্ডিপুর বাজারে গেলে সেখানে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা কাঞ্চন তাকে কুঠার দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে।

এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রিপন। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই নিহতের স্ত্রী নাসরিন আক্তার হাসি বাদী হয়ে কাঞ্চনের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত শেষে পরের বছর মার্চ মাসে কাঞ্চনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইন্দুকানী থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক মোঃ শফিকুল ইসলাম। এ রায়ে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

ইমাম হোসেন, পিরোজপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button