বাংলাদেশজনদুর্ভোগ

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তীব্র গ্যাস সংকট

রাজধানীতে গ্যাসের সংকট তীব্রতর হচ্ছে দিনে দিনে। শীত মৌসুমে তা যেন মাত্রা ছাড়িয়েছে যায়। নগরীর বিভিন্ন এলাকার বাসাবাড়িতেই, রান্নার চুলা জ্বালাতে অপেক্ষা করতে হয় ঘন্টার পর ঘন্টা। আবার কোথাও কোথাও দিনভর মিললেও, তাতে গ্যাসের চাপ যতসামান্যই।

এ অবস্থায় দৈনন্দিন প্রয়োজন সারতে হিমসিম খেতে হয় বাসিন্দাদের। নগরীর নিরন্তর এ সমস্যা নিরসনে জানতে চাইলে, বরাবরই সদুত্তর আসে না তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের।

সকাল হতে না হতেই রাজধানীর অনেক এলাকার বাসাবাড়িতে শুরু হয় রান্নার তোড়জোড়। এটি কোন অনুষ্ঠান বা মেহমানদারির জন্য নয়। আসলে, একটু পরেই বন্ধ হয়ে যাবে গ্যাসের সাপ্লাই। পরে দিনভর আর আসেই কিনা সন্দেহ।

যাও আসে, সন্ধ্যার আগে তো নয়। পরিবারের দু’বেলা আহারের সংস্থান করতে তাই নিত্যদিনের এই চ্যালেঞ্জ। কোন কোন এলাকায় ৬ মাস থেকে বছরের পর বছর ধরে এমন গ্যাস সংকট। আর শীত এলেই যেন দুর্ভোগটা বেড়ে যায় আরো।

এদিকে, মাস শেষে তিতাসের নিয়মিত গ্যাসবিল পরিশোধ করেও, ভোগান্তি থেকে পরিত্রাণ নেই। রান্নার জন্য বাধ্য হয়েই, লাড়কির চুলার ঝক্কি পোহাতে হচ্ছে অনেককে। আবার কেউ কেউ বাড়তি টাকা খরচ করে সিলিন্ডার ব্যবহার করছেন।

অন্যদিকে, নগরীর গ্যাস সরবরাহের এই বিড়াম্বনা ফুরাবে কবে? এমন প্রশ্ন বরাবরেই মতোই এড়িয়ে যায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

আবাসিক খাতে গ্যাসের এ সংকট দিনদিনই তীব্র হচ্ছে। চাহিদা মেটাতে, চলমান গ্যাসক্ষেত্রগুলো থেকে আরো অধিক পরিমান উত্তোলন কিংবা সম্ভাব্য নতুন গ্যাসক্ষেত্র অনুসন্ধানে জ্বালানি বিভাগের সমন্বিত পরিকল্পনা এখন সময়ের দাবি।

শাহরিয়ার রাজ, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button