দেশবাংলা

সিংড়া ও বড়াইগ্রামে উদ্ধারকৃত ২টি গন্ধগোকুল অবমুক্ত

নাটোরের সিংড়া ও বড়াইগ্রাম থেকে স্থানীয় সাংবাদিক ও পরিবেশকর্মীদের প্রচেষ্টায় বিলুপ্ত প্রায় দুথটি গন্ধগোকুল উদ্ধারের পর অবমুক্ত করা হয়। খাঁচায় তালা দিয়ে রাখা একটি গন্ধগোকুল সিংড়া উপজেলার খাজুরিয়া ইউনিয়নের সোয়াইড় ও অপরটি বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নের মহানন্দগাছা গ্রাম থেকে উদ্ধার করে পৃথক দুটি জঙ্গলে অবমুক্ত করা হয়।

পরিবেশবাদী সংগঠন চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম জানান, রোববার সন্ধ্যায় নাটোরের সিংড়া উপজেলার খাজুরিয়া ইউনিয়নের সোয়াইড় গ্রামের কৃষক আব্দুস সবুর সরকারের বাড়ির হাঁস-মুরগীর ঘরে একটি গন্ধগোকুল ঢুকে পড়ে। পরে ওই গন্ধগোকুলটি ধরে একটি খাঁচায় তালা দিয়ে রাখা হয়।

অপরটি বড়াইগ্রামের মহানন্দগাছা গ্রামে গত বৃহস্পতিবার রাতে একটি গন্ধগোকুলকে কুকুর ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে পালাতে গিয়ে একটি পুকুরের পানিতে পড়ে যায় গন্ধগোকুলটি। পরে স্থানীয় বাসিন্দা কামাল হোসেন মাছ ধরা জাল দিয়ে পুকুর থেকে গন্ধগোকুলটি উদ্ধার করেন।

গত চারদিন ধরে তিনি প্রাণীটিকে সেবাশুশ্রুষা ও খাবার দিয়ে সুস্থ করে তোলেন। পরে সোমবার রাতে স্থানীয় সাংবাদিক ও পরিবেশকর্মীদের সহযোগিতায় গন্ধগোকুল দুটিকে পাশের জঙ্গলে পৃথক পৃথক ভাবে অবমুক্ত করা হয়।

রাজশাহী বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বন্যপ্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবির জানান, এ প্রাণীর নাম গন্ধগোকুল। এরা নিশাচর প্রাণী, মূলত এরা ফল খেকো হলেও কীটপতঙ্গ ও শামুক খেয়ে জীবনযাপন করে। এছাড়া এরা ইঁদুর খেয়ে ফসলের উপকার করে থাকে।

মেহেদী বাবু, নাটোর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button