আন্তর্জাতিকআইন-বিচারএশিয়া

মিয়ানমারে বিক্ষোভে গুলিবিদ্ধ সেই তরুণীর মৃত্যু

মিয়ানমারে সামরিক সরকারবিরোধী আন্দোলনে গুলিবিদ্ধ হওয়া সেই নারী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায় ২০ বছর বয়সী মায়া গত সপ্তাহে নেইপিদোতে সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে অবস্থান নেওয়ায় নিরাপত্তা বাহিনীর ছোঁড়া গুলিতে মারাত্মকভাবে আহত হন।
তার মাথায় গুলি লাগায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

অভ্যুত্থানের পর এই প্রথম কোন নাগরিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে মারা গেলেন। তাজা গুলিতেই গুরুতর আহত হয়েছিলেন মায়া, অভিযোগ করে আসছিল মানবাধিকার সংস্থাগুলো। কিন্তু মানবাধিকার সংস্থাগুলোর অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, রাবার বুলেটের আঘাতে তিনি আহত হন।

এই ঘটনায় আন্তর্জাতিক মহলে ব্যাপক নিন্দার ঝড় বয়ে যায়। এবার তার মৃত্যুর ঘটনায় এখন আরও চাপের মুখে পড়তে যাচ্ছে জান্তা সরকার।

এদিকে সামরিক অভ্যুত্থানের জেরে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আসছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর উপর। যুক্তরাষ্ট্রের পর এবার মিয়ানমারের বেশ কয়েকজন শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাজ্য ও কানাডা।  বৃহস্পতিবার  এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানে নেতৃত্বদানকারী তিন জেনারেলের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত ও ভ্রমণ নিষিদ্ধ করছে ব্রিটেন। অন্যদিকে, কানাডা ৯ জেনারেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button