দেশবাংলা

পূর্ব বিরোধে বিদ্যুতবঞ্চিত পরিবার, আদালতে মামলা

জগন্নাথপুর পৌরসভার হবিবপুর (শাহপুর) গ্রামের এক নিরীহ ব্যক্তিকে বিদ্যুৎ লাইন সংযোগের সুযোগ দিচ্ছেন না এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। অবশেষে বিষয়টি মামলা পর্যন্ত গড়িয়েছে। ভুক্তভোগী রুনু মিয়া গত ১৮ মার্চ সুনামগঞ্জ আমলগ্রহনকারী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির জায়গা ও রাস্তার সীমানা নিয়ে বিরোধ চলছিল পার্শ্ববর্তী গোলাম রব্বানী মিয়ার সাথে। বিরোধের জের ধরে দুই মাস আগে রব্বানীর মিয়ার বাড়ির উপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের লাইন জোরপূর্বক কেটে তাতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে রুনু মিয়া জগন্নাথপুর থানায় সাধারণ ডাইরিও করেন। এরপর থেকে দীর্ঘ দুই তিন মাস ধরে অন্ধকারে আছেন রুনু মিয়া পরিবার। তার ছেলেমেয়েরা লেখাপড়া করতে পারছে না। বিষয়টি নিয়ে রুনু মিয়া বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ করলেও কোন সুফল পাননি। এ অবস্থায় অসহায় হয়ে পড়েন পরিবার নিয়ে। অবশেষে নিরুপায় হয়ে রুনু মিয়া সুবিচারের জন্য রব্বানী গংদের উপর সুনামগঞ্জ আমলগ্রহনকারী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী হয়ে মালমা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে মৃত সাদ মিয়ার পুত্র গোলাম রব্বানীর সাথে মৃত আব্দুল মুতলিব মিয়ার পুত্র রুনু মিয়ার বিরোধ চলছিল। এ অবস্থায় রব্বানী বাড়ির উপর দিয়ে বিদ্যুতের লাইন নিতে বাদা প্রদান করেন। পরে রুনু মিয়া জগন্নাথপুর আবাসিক প্রকৌশলী বিদ্যুৎ অফিসে রুনু মিয়া লিখিত অভিযোগ করেন। কিন্তু গোলাম রব্বানীর প্রভাবে এলাকার কেউ তার বিরুদ্ধে কথা বলতে সাহস পাননি।

রুনু মিয়া বলেন, ‘আমি দীর্ঘ ২০/২৫ বছর ধরে বিদ্যুৎ জ্বালিয়ে আসছি। হঠাৎ করে রব্বানী আমার লাইনে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। আমার সব পুড়ে গেছে। বিদ্যুৎ অফিস আমার লাইন দিচ্ছে না।’

এদিকে, অভিযোগের ব্যাপারে বিবাদী গোলাম রব্বানী সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

আবাসিক প্রকৌশলী বিদ্যুৎ অফিসে সহকারী প্রকৌশলী পাবেল মিয়া জানান, ‘রব্বানী মিয়া আমাদের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। উনার বাড়ির উপর দিয়ে বিদ্যুতের লাইন নিতে দিবেন না। আমরা সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টি দেখবো।’

জগন্নাথপুর ( সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button