আন্তর্জাতিকবিশ্ববাংলাযুক্তরাষ্ট্র

ইমিগ্র্যান্ট ভিসা ইন্টারভিউ বন্ধ থাকায় বিপাকে আবেদনকারীরা

মহামারী করোনার কারণে মার্কিনযুক্তরাষ্ট্রের সকল ক্যাটাগরির ইমিগ্র্যান্ট ভিসা ইন্টারভিউ বন্ধ রয়েছে। ফলে কারো কারো ভিসা ডকুমেন্টের মেয়াদও শেষ হয়ে যাচ্ছে। এতে চরম বিপাকে রয়েছেন ঢাকায় আমেরিকার দূতাবাসে ইমিগ্রান্ট ভিসার আবেদনকারী সাক্ষাৎ প্রার্থীরা। সংকট সমাধানে প্রধানমন্ত্রীরে সহযোগিতা চাচ্ছেন তারা।

মার্কিনযুক্ত রাষ্ট্রের উন্নত জীবনে ব্যস্ত থাকলেও দেশে রেখে যাওয়া মা-বাবা, ভাই বোন কিংবা স্বজনদের কাছে নেয়ার আকুলতা অধিকাংশ বাঙালীর।  যে কারনেই তারা কাছের স্বজন কিংবা রেখে যাওয়া স্বামী-স্ত্রী’র জন্য ইমিগ্রান্ট ভিসা আবেদন করানো হয়। আইনি বিভিন্ন ধাপ পেরিয়ে সেসব ভিসা আবেদনের ইন্টারভিউয়ের অনুমতি মেলে বেশ কয়েক বছর পর। অনেকের তো ১৫ বছর আগে করা আবেদনেরও ইন্টারভিউর জন্য তারিখ নির্ধারিত হয়েছিল ২০২০ এর মার্চ মাসে।

কিন্তু মহামারী করোনার প্রকোপে ঢাকায় ইউএস এ্যাম্বেসী ঐসকল ইন্টারভিউ নেয়া বন্ধ করে দেয়।  যা এখনো চালু হয়নি। ফলে অনেকের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে, কারো বা বয়স সীমাও পার হয়ে যাচ্ছে। ফলে চরম বিপাকে আছেন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা ইন্টারভিউ আবেদনকারী।

এমন প্রেক্ষাপটে প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ইমিগ্র্যান্ট ভিসা ইন্টারভিউ শুরু করতে সরকারের কাছ থেকে কূনৈতিক সহযোগিতা চেয়েছেন আবেদনকারীরা। ইউএসএ ইমিগ্র্যান্ট ভিসা পেন্ডিং কেস হোল্ডারস কমিউনিটি ফ্রম বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠন বলছে, লকডাউনের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইন্টারভিউ কাযক্রম পুনরায় চালু করানো গেলে সংকট দ্রুত সমাধান হত।

এতে শত শত পরিবারের হাজার হাজার সদস্য মানসিকভাবে হতাশ ও বিপাকে পড়েছেন। দীর্ঘদিন পরিবারের সদস্যদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আছেন তারা।

লকডাউনের মধ্যেই প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে, সকল ক্যাটাগরির ইমিগ্র্যান্ট ভিসা ইন্টারভিউ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দ্রুত চালু করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেন ভুক্তভোগীরা।

বাংলাটিভি/রাজ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button