বিশ্ববাংলা

হজের সময় মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা দেওয়া হয়

পবিত্র মক্কার ২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত আরাফার ময়দান।  এর পশ্চিম সীমান্তে অবস্থিত বিখ্যাত একটি মসজিদ হল নামিরা।  বিদায় হজের সময় আরাফার দিনে এই মসজিদেই রাসূল (সা:) নামাজের ইমামতি করেন এবং খুতবা দিয়েছিলেন।

হিজরি দ্বিতীয় শতকে মসজিদে নামিরা  নির্মাণ করা হয়।  পরে বর্তমান সৌদি সরকারের শাসনামলে মসজিদের সংস্কার করা হয়েছে।  মসজিদটিতে একত্রে ৩ লাখ ৫০হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন।

মসজিদের সামনের অংশটি আরাফার বাইরে থাকলেও পিছনের অংশ এর মধ্যেই রয়েছে। মসজিদটিতে ৬০ মিটার উঁচু ৬টি মিনার, তিনটি গম্বুজ ও ১০টি প্রধান দরজা রয়েছে। ইসলামী বিশেষজ্ঞদের মতে, এ মসজিদের জমিন থেকেই হজরত জিবরাইল (আ.) হজরত ইবরাহিম (আ.) কে হজের নিয়মকানুন শিক্ষা দিয়েছিলেন।  তাছাড়া হজরত আদম ও হাওয়ার জান্নাত থেকে পৃথিবীতে ভিন্ন ভিন্ন স্থানে বসবাসের পর, এ ময়দানেই আবার সাক্ষাৎ ঘটেছিল।

অনেকেই আরাফার ময়দানে মসজিদটি দেখতে যান,হজের সময় মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা দেওয়া হয়।  যারা হজ পালন করতে যান, তাদের সবার কাছেই মসজিদে নামিরা বিশেষভাবে পরিচিত।  হজের নিয়ম অনুযায়ী আরাফার দিন হাজিরা মসজিদে নামিরাসহ এর আশপাশে জোহর ও আসরের নামাজ একসাথে আদায় করেন।  এখান থেকেই, বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কে দিক-নির্দেশনা প্রদানের পাশাপাশি, সবার কল্যাণ কামনায় মোনাজাত করা হয়।

বাংলাটিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button