fbpx
বাংলাদেশ

ভ্যাট প্রত্যাহারের পরও তেল, চিনি, ছোলার দাম কমেনি

KSRM

ছুটিরদিন সকাল থেকে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন অভিযোগ ক্রেতাদের। এগুলোর পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সব ধরনের সবজির দাম। ক্রেতারা বলছেন, মুখে নয় বাজার সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে সংশ্লিষ্টদের তদারকি প্রয়োজন। এছাড়া রমজানের আগে বাজার মনিটরিং করার দাবি জানান ক্রেতারা।

অন্যদিকে বিক্রেতাদের বলছেন, পর্যাপ্ত রয়েছে সব ধরনের পণ্য তাই সরকারের নির্ধারিত মূল্য অনুযায়ী বিক্রি করা হচ্ছে নিত্যপণ্য। আজ মোহাম্মপুর টাউন হল মার্কেটে রূপচাঁদা সয়াবিনের ৫ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকা, পাঁচ লিটারের তীর সয়াবিন তেল ৭৯৫ টাকা। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি চিনি ৭৭ টাকা বিক্রি করা হলেও এখন ৮০ টাকা কেজি, ছোলা ৭১ টাকা কেনা হলেও ব্যবসায়ীরা বিক্রি করছেন ৭৫ থেকে ৮০ টাকা প্রতি কেজি বিক্রি করা হচ্ছে। আর পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৩ টাকা, প্রতিটি লাউ ৮০ টাকা, ফুলকপি ৬০ থেকে ৮০ টাকা, করলা বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা কেজি।

গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে প্রতিটি পণ্যের দামই ৫ থেকে ১০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।এর আগে, গতকাল ভোজ্যতেল, চিনি ও ছোলার দাম কমাতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ভ্যাট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় এই ঘোষণা দেন অর্থমন্ত্রী। অর্থমন্ত্রী ভোজ্যতেলের উৎপাদন পর্যায়ে ১৫ শতাংশ এবং ভোক্তা পর্যায়ে ৫ শতাংশ ভ্যাট মওকুফের ঘোষণা দেন। এই ভ্যাট প্রত্যাহার ৩০ জুন পর্যন্ত বহাল থাকবে বলে জানানো হয়।

বর্তমানে এক লিটার সয়াবিন তেলের সর্বোচ্চ দাম ১৬৮ টাকা, এই ভ্যাট প্রত্যাহার বাস্তবায়ন হলে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৩০ টাকা কমবে। এর আগে, চিনির দাম স্থিতিশীল রাখতে সরকার চিনির ওপর ১০ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছিল।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button