দেশবাংলা

খুলনায় নদী ভাঙনে বসতভিটা সড়ক নদীগর্ভে

||এম.ডি.অসীম,খুলনা||

খুলনার তেরখাদা উপজেলার পারহাজী গ্রাম এলাকায় আতাই নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে গেছে প্রায় শতাধিক ঘর বাড়ীসহ আধা কিলোমিটার সড়ক। খুলনা শহর থেকে প্রায় ৩ কিলো মিটার দুরে তেরখাদা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়ন। আর এখানে আতাই নদীর পাড় ঘেঁসে ৫ হাজার লোকের বসবাস নিয়ে পারহাজী গ্রাম।

গেল ১৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় পরিবারের সবাই যখন নিজ নিজ ঘরে ঠিক তখনই ভাঙ্গন শুরু । মুহূর্তের মধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায় শতাধিক ঘর বাড়ী। সব কিছু হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে হতাশায় দিন কাটছে নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্তদের। আর নদী গর্ভে সড়ক বিলীন হওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে । এতে চরম দূর্ভোগে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ।

নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্তরা জানান,যা ছিল সব শেষ হয়ে গেছে,কিছুই নাই। তাই কখনো খেয়ে আবার কখনো না খেয়ে বেঁচে আছি।

তবে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড খুলনা এর নির্বাহী প্রকৌশলী শরীফুল ইসলাম জানান(পওর বিভাগ -১),আতাই নদী ভাঙ্গন  ঠেকাতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে ২০ লাখ টাকার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ডাম্পিং ও  রিং তৈরির কাজ দ্রুত চলছে এবং পরবর্তীতে স্থায়ীয় ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে এ এলাকার মানুষের দাবি,শুধু আশ্বাস আর প্রতিশ্রুতিই নয়,সরকারী উদ্যোগে স্থায়ীভাবে নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধ করতে হবে।

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close