জনদুর্ভোগ

উত্তরের পথে দীর্ঘ জট

ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে থেমে থেমে যানবাহন চলাচল করছে। এতে করে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষকে। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এমন চিত্র দেখা যায়। টাঙ্গাইল পার হতেই পাঁচ-ছয় ঘণ্টা লেগে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন যাত্রীরা।

টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জীব কুমার রায় বলেন, ঢাকা-গাজীপুরসহ বিভিন্ন এলাকার গাড়ি এলেঙ্গা পর্যন্ত আসছে চার লেইন দিয়ে। কিন্তু এলেঙ্গা থেকে সড়ক হচ্ছে দুই লেইনের।

“চার লেইন দিয়ে আসা গাড়িঘোড়া দুই লেইনে এসে জট পাকাচ্ছে। এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার দুই লেইনের সড়কে এই সমস্যা দেখা দিচ্ছে। অতিরিক্ত গাড়ির চাপে জটে পড়ছে উত্তরবঙ্গের যান।” 

সরেজমিনে দেখা গেছে, বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে টাঙ্গাইলের পাকুল্লা পর্যন্ত প্রায় ৪০ কিলোমিটার জুড়ে তীব্র যানজটে আটকা পড়ে নাকাল হচ্ছেন যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা। এই ৪০ কিলোমিটারে কখনও খুব ধীরগতিতে, কখনও থেমে থেমে চলছে যানবাহন। মাঝেমধ্যেই আটকা পড়ে থাকছে দশ-বিশ মিনিট। পাকুল্লা, করটিয়া বাইপাস, নগরজলফই, রাবনা বাইপাস ও এলেঙ্গায় এই জট কিছুক্ষণ পরপর পাঁচ-ছয় কিলোমিটার পর্যন্ত দীর্ঘ হচ্ছে।

এই অতিরিক্ত গাড়ির চাপের কারণে বঙ্গবন্ধুসেতু থেকে সিরাজগঞ্জের হাটিরকুমড়ুল মোড় পর্যন্ত কোনো গাড়ি দ্রুত চলতে পারছে না, এটাই যানজটের কারণে বলে জানিয়েছে টাঙ্গাইল ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক মো. এশরাজুল হক।

মহাসড়কের করাতিপাড়া বাইপাস এলাকায় দায়িত্বে থাকা সাব-ইনস্পেক্টর মাজাহারুল ইসলাম বলেন, ‘রাত থেকেই গাড়ি থেমে থেমে চলাচল করছে। কিছু দূর গাড়ি চললে আবার আটকে যাচ্ছে।’ যানজটের কারণ হিসেবে তিনিও সিরাজগঞ্জ দিয়ে গাড়ি ঠিকমতো পাস করতে না পারার কথা জানিয়েছেন। 

বাংলাটিভি/প্রিন্স

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close